fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের মেয়াদ বৃদ্ধির বিরোধিতা করে অবস্থান-বিক্ষোভে বসল তৃণমূল

উপাচার্যের বাংলোয় হামলা আন্দোলনকারীদের, অভিযোগ খোদ উপাচার্যের

অভিষেক আচার্য, কল্যাণী: নদীয়ার বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ধরণীধর পাত্রের মেয়াদ বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা ছড়ায় বিশ্ববিদ্যালয় জুড়ে। উপাচার্যের ঘরের সামনে অবস্থান বিক্ষোভে বসে তৃণমূল পরিচালিত কর্মী সংগঠন। এমনকি উপাচার্যের বাংলোয় তৃণমূল সমর্থিত আন্দোলনকারীরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ।

 

 

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, চলতি বছরের ৯ ই জুন মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ধরণীধর পাত্রের। ইতিমধ্যে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর নোটিশ পাঠিয়ে জানান, উপাচার্য ধরণীধর পাত্রের মেয়াদ বাড়ানো হচ্ছে ৬ মাসের জন্য। আর এখানেই বিরোধিতা করে তৃণমূল পরিচালিত বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী সংসদের কর্মীরা। রাজ্যপালের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস জুড়ে একটি মিছিল বের করে তৃণমূল। তারপর উপাচার্যের অফিস ঘরের সামনে অবস্থান বিক্ষোভে বসেন আন্দোলনকারীরা।

 

 

অপরদিকে উপাচার্য ধরণীধর পাত্রের অভিযোগ, তাঁর বাংলোয় হামলা চালায় কয়েকজন আন্দোলনকারী। তাঁর বাংলোর গেটের তালা ভেঙে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন তিনি। যদিও এই বিষয়টা মানতে নারাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী সংসদের সম্পাদক মরণ কুমার দে। তিনি বলেন, উপাচার্যের বাংলোয় যাঁরা আক্রমণ করেছেন বলে অভিযোগ তাঁদের আমরা সমর্থন করি না। দল এটা অনুমোদনও করে না। পাশাপাশি রাজ্য সরকারের সঙ্গে কোনো আলোচনা না করেই রাজ্যপাল উপাচার্যের মেয়াদ বৃদ্ধি করেছেন। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন। আর এই আন্দোলন চলবে।

 

 

এই বিষয়ে বিজেপি নেতা মানবেন্দ্র রায় বলেন, এর বিরোধিতা রাজনৈতিক দল কেন করবে? বিরোধিতা তো সরকারের করার কথা। কিন্তু সরকার তো কোনো বিরোধিতায় করছে না। এই আন্দোলন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিমণ্ডলকে নষ্ট করছে। ক্যাম্পাসের মধ্যে রাজনীতি করে বিশ্ববিদ্যালয়কে কলুষিত করা ঠিক নয় বলে জানান তিনি।

Related Articles

Back to top button
Close