fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ধমসা, মাদল ও আদিবাসী নৃত্য সহযোগে নোয়াপাড়ায় সূচনা হল তৃণমূলের বঙ্গধ্বনি যাত্রা

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর: শুক্রবার সকালে উত্তর ২৪ পরগনার নোয়াপাড়া বিধানসভা কেন্দ্র এলাকায় সূচনা হল তৃণমূল কংগ্রেসের বঙ্গধ্বনি যাত্রার । বর্তমান তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের গত ৯ বছরের কাজের খতিয়ান কেমন ছিল ? সেই খতিয়ান নিয়েই বঙ্গধ্বনি যাত্রার শুভ সূচনা হল শুক্রবার । শুক্রবার সকালে নোয়াপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্ভুক্ত ইছাপুর অশোকনগর বাস স্ট্যান্ড থেকে ঘোষপাড়া রোড হয়ে বঙ্গধ্বনি যাত্রা সমাপ্ত হয় ইছাপুর কণ্ঠাধার মোড় পর্যন্ত এসে । নোয়াপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের সর্ব স্তরের প্রায় ২ হাজার তৃণমূল কর্মী এদিন বঙ্গধ্বনি যাত্রায় শামিল হন । ধামসা, মাদল, আদিবাসী নৃত্য সহযোগে শুক্রবার সূচনা হল তৃণমূল কংগ্রেসের নতুন কর্মসূচি বঙ্গধ্বনি যাত্রার ।

নোয়াপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্ভুক্ত গারুলিয়া পৌরসভা, উত্তর ব্যারাকপুর পৌরসভা, মোহনপুর গ্রাম পঞ্চায়েত ও শিউলি গ্রাম পঞ্চায়েতের সমস্ত প্রাক্তন কাউন্সিলররা, ২ পৌরসভার ২ জন প্রশাসক সহ সব জন প্রতিনিধিরা এদিনের বঙ্গধ্বনি যাত্রার মিছিলে অংশ নেয় । মিছিলের নেতৃত্ব দেন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি দেবরাজ চক্রবর্তী ও নোয়াপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের চেয়ারপার্সন মঞ্জু বসু ।

দেবরাজ চক্রবর্তী বলেন, “আমরা চাই আমাদের সরকার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পুনঃ প্রতিষ্ঠা হোক । আমাদের তৃণমূল কংগ্রেস সরকার সর্বদা মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে কাজ করে চলেছে । গত ৯ বছরে তৃণমূল কংগ্রেস যেভাবে মানুষের জন্য কাজ করছে তার রিপোর্ট কার্ড এবং কাজের খতিয়ান নিয়ে আমরা মানুষের দরবারে যাব আজকে থেকে । মানুষকে বলব, আমরা কি কাজ বাংলার জন্য করেছি । জনতার সামনে তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের কাজের খতিয়ান তুলে ধরাই বঙ্গধ্বনি যাত্রা কর্মসূচির মূল উদ্দেশ্য

Related Articles

Back to top button
Close