fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

শর্তসাপেক্ষে তুরস্কের সঙ্গে আলোচনায় রাজি গ্রিস

এথেন্স, (সংবাদ সংস্থা): ন্যাটোর দুই সদস্য দেশ তুরস্ক ও গ্রিসের  মধ্যে পূর্ব ভূমধ্যসাগরের তেল ও গ্যাসের মালিকানা নিয়ে যে উত্তেজনা চলছে, অবশেষে তা সমাধানের জন্য আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছে গ্রিস। তবে আলোচনার জন্য কিছু শর্ত জুড়ে দিয়েছেন গ্রিসের প্রধানমন্ত্রী কিরিয়াকোস মিটসোটাকিস।
গত আগস্ট মাসে বিরোধপূর্ণ পূর্ব ভূমধ্যসাগরের এলাকায় তেল-গ্যাস অনুসন্ধান শুরু করার পর থেকে এথেন্স এবং আংকারা মধ্যে উত্তেজনা চরমে ওঠে। পরে গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে উক্ত একালায় অনুসন্ধান বন্ধ করার কথা থাকলেও তুরস্ক তা চালিয়ে যায় ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ফলে দুই দেশের মাঝে সামরিক সংঘাতের সম্ভাবনা তৈরি হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে আসরে নামে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সূত্রের খবর, চলমান এই বিরোধ মেটাতে মঙ্গলবার এথেন্সে গ্রিসের প্রধানমন্ত্রী কিরিয়াকোস মিটসোটাকিসের সঙ্গে কথা বলেন ইউরোপীয় ইউনিয়ন কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেল। দু’জনের মাঝে দীর্ঘ আলোচনার পর অবশেষে গ্রিসের প্রধানমন্ত্রী জানান, তিনি আলোচনায় বসতে রাজি আছেন। কিন্তু তার আগে তুরস্কের কিছু শর্ত মানতে হবে।

[আরও পড়ুন- করোনার কারণে মায়ানমারে নির্বাচন পিছনোর দাবি বিরোধীদের]

আলোচনার শর্ত হিসেবে তিনি জানান, ‘ওই অঞ্চল থেকে অনুসন্ধান জাহাজটি প্রত্যাহার করতে হবে তুরস্ককে। এছাড়া পরবর্তীতেও আংকারাকে এই ধরনের সংকট তৈরি করা থেকে বিরত থাকতে হবে। এসব শর্ত মানা হলে শুধুমাত্র তখনই আলোচনায় বসতে প্রস্তুত গ্রিস।’ সময়সীমা প্রসঙ্গে গ্রিসের প্রধানমন্ত্রী জানান, ‘সংকট থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নেয়ার প্রথম পদক্ষেপ অব্যাহত রাখতে ইইউ শীর্ষ সম্মেলনের আগে এবং তারপরেও তুরস্কের হাতে সময় আছে।’ জানা যাচ্ছে আগামী ২৪-২৫ সেপ্টেম্বর ইইউ-র শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। তার আগেই তুরস্ককে নিজেদের পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকার ইংগিত দিয়েছেন গ্রিসের প্রধানমন্ত্রী। তবে, এব্যাপারে এখনো কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি আংকারা।

Related Articles

Back to top button
Close