fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

পদত্যাগ তুরস্কের অর্থমন্ত্রী বেরাত আলবাইরাকের

নিজস্ব প্রতিনিধি, আংকারা:  ‘স্বাস্থ্যগত’ কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করেছেন তুরস্কের অর্থমন্ত্রী বেরাত আলবাইরাক। রবিবার, টুইট করে নিজেই সেকথা জানিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট এরদোগানের বড় জামাই আলবাইরাক লিখেছেন, ‘স্বাস্থ্যগত কারণে আমি আমার দায়িত্ব চালিয়ে যেতে পারছি না। এ পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি।’ কিন্তু, সূত্রের খবর, ‘স্বাস্থ্যগত’ কারণ নয়, তুরস্কের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন গভর্নর নিয়োগকে কেন্দ্র করে প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সাথে মতবিরোধের কারণে পদত্যাগ করেছেন আলবাইরাক।
জানা যাচ্ছে, চলতি বছরের শুরু থেকেই ডলারের বিনিময়ে তুর্কি মুদ্রা লিরার দাম ৩০ শতাংশ পড়ে যাওয়ায়, গত শনিবার এক ডিক্রি জারির মাধ্যমে তুরস্কের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর মুরাত উইসালকে বরখাস্ত করেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান। এরপর নতুন গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়ে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী নেসি আগবালকে। আর এরদোগানের এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেন নি জামাই আলবাইরাক। যার কারণেই তিনি পদত্যাগ করেছেন।
তবে, এদিকে পরিস্থিতি সামাল দিতে আসরে নেমেছেন তুরস্কের ক্ষমতাসীন একেপি পার্টির পার্লামেন্টারি ডেপুটি গ্রুপের চেয়ার মেহমেত মুস। এক টুইট বার্তায় আলবাইরাকের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলেছেন, তিনি খুব কঠিন সময়ে দেশের অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি আশা প্রকাশ করেছেন যে, প্রেসিডেন্টের অনুমতি নিয়ে আলবাইরাক নিজের দায়িত্ব চালিয়ে যাবেন। তাছাড়া, প্রেসিডেন্ট এরদোগান  অর্থমন্ত্রী বেরাত আলবাইরাকের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন কীনা তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায় নি। এর আগে চলতি বছরের শুরুতে পদত্যাগ করেছিলেন তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সয়লু। সে সময় তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি এরদোয়ান এবং তিনি ওই পদে এখনও বহাল আছেন।
উল্লেখ্য, তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের বড় মেয়ে ইসরার সঙ্গে বিয়ে হয়েছে আলবাইরাকের। যে আলবাইরাক ২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত তুরস্কের বিদ্যুৎমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এরপর ২০১৮ সাল থেকে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। কিন্তু, শশুর তথা তুরস্কের প্রেসিডেন্টের সাথে মতবিরোধের কারণে অর্থমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন আলবাইরাক।

Related Articles

Back to top button
Close