fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সার্ভার হ্যাক করে ভুয়ো আধার কার্ড তৈরির অভিযোগে গ্রেফতার দুই

মিল্টন পাল,মালদা:  সার্ভার হ্যাক করে ভুয়ো আধার কার্ড তৈরির অভিযোগে গ্রেফতার দুই। মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর থানার চন্ডিপুর এলাকার ঘটনা। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার অন্তর্গত চন্ডিপুর মার্কেটের একটি দোকান থেকে জাল আধার কার্ড তৈরির অভিযোগে দুই জনকে গ্রেফতার করে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। এই চক্রের সঙ্গে আর কেউ জড়িত রয়েছে কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে,ধৃতদের নাম অভিজিৎ দাস(৩৮)এবং আব্দুল রোফ(৩২)। বাড়ি হরিশ্চন্দ্রপুর থানার তুলসিহাটা এলাকায়। এদের বিরুদ্ধে অভিযোগ এরা ভুয়ো আধার কার্ড তৈরির কাজ করছিল। আধার কার্ড তৈরির জন্য স্থানীয় প্রায় ৫০ থেকে ৬০ জন বাসিন্দাদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে রেখেছিল। কিন্তু যেগুলি তৈরি করেছে প্রত্যেকটাই জাল আধার কার্ড। চন্ডিপুর মার্কেটে একটি দোকান খুলে এইকাজ চালাচ্ছিল তারা। সার্ভার হ্যাক করে এই কাজ করছিল বলে পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে অনুমান।ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ল্যাপটপ প্রিন্টার ও দুটি মোবাইল ফোন। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে এই দু’জনকে গ্রেফতার করে। ধৃতদের সাত দিনের পুলিশি হেফাজতের আবেদন জানিয়ে চাঁচল মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ।”

আরও পড়ুন :  শিক্ষক বদলি প্রক্রিয়ায় আমূল পরিবর্তন! সাত দিন হবে বদলি আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর

স্থানীয় বাসিন্দা শেখ তালিম বলেন,দীর্ঘদিন থেকেই”আধার কার্ড নিয়ে ঝামেলা হচ্ছিল।ওই দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল যে তারা জাল আধার কার্ড তৈরি করছে। স্থানীয় বাসিন্দারা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে তাদের গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। এই ধরনের জাল আধার তৈরি করা নিরাপত্তার’ পক্ষে বিপদজনক। বাংলাদেশ বা অন্যান্য দেশ থেকে যে কেউ কার্ড করে এদেশে কাজ করতে পারে। যা দেশের পক্ষে ক্ষতি। আইন অনুযায়ী এদের শাস্তি হোক এটাই চাইবো।” জেলার পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানান, গোপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে অভিযান অভিযান চালিয়ে দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভুয়ো আধার কার্ড তৈরির অভিযোগ রয়েছে এদের বিরুদ্ধে। কিভাবে ভুয়ো আধার কার্ড তৈরি করছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close