fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রাস্তায় অচৈতন্য হয়ে পড়ে থাকা ব্যক্তিকে উদ্ধার করে তার লাখ টাকা ভর্তি ব্যাগ ফিরিয়ে দিলেন ২ সিভিক ভলেন্টিয়ার

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: অসহায়ের প্রতি মানবিকতা দেখানোর পাশাপাশি সততার পরিচয় দিলেন দুই সিভিক ভলেন্টিয়ার।পূর্ব বর্ধমানের দেওয়ানদিঘি থানায় কর্মরত ওই দুই সিভিক ভলেন্টিয়ার হলেন অমিত ঘোষ ও বুদ্ধদেব চট্টোপাধ্যায়। সড়কপথে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে থাকা এক ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করার পাশাপাশি তারা তাঁর লাখ টাকা ভর্তি ব্যাগটিও ফিরিয়ে দিয়েছে। এমন দৃষ্টান্তমূলক কাজের জন্য দুই সিভিক ভলেন্টিয়ারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ থানার ওসি থেকে শুরু করে দেওয়ানদিঘির আপামর বাসিন্দা।


পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার গভীর রাতে বাইকে চড়ে বর্ধমান-কুসুমগ্রাম রোডে নজরদারি চালাচ্ছিলেন দুই সিভিক ভলান্টিয়ার অমিত ঘোষ ও বুদ্ধদেব চট্টোপাধ্যায়। সেই সময়ে তারা দাসপুরের কাছে সড়ক পথে এক ব্যক্তিকে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।পাশেই পড়েছিল তাঁর বাইকটি, ও একটি ব্যাগ। ব্যাগে ছিল প্রায় ১ লক্ষ টাকা।এমনটা দেখেই দুই সিভিক ভলেন্টিয়ার থানার ওসিকে সবিস্তার জানান। সঙ্গে সঙ্গে ওসি সেখানে গাড়ি পাঠান।ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় কুড়মুন ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে। সেখানে চিকিৎসার কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর ওই ব্যক্তিকে থানায় এনে রাখা হয়। ওসি তাঁর খাবারের ব্যবস্থা করেন।

বুধবার সকালে ওই ব্যক্তি পুলিশকে জানান, তাঁর নাম বিশ্বনাথ বাগ। দেওয়ানদিঘি থানারই কলিগ্রামে তাঁর বাড়ি। নিজের লটারির টিকিটের ব্যবসা রয়েছে বলে ওই ব্যক্তি পুলিশকে জানান। এরপরেই থানার লোকজন বিশ্বনাথ বাগের বাড়িতে খবর পাঠান। পরিবারের লোকজন থানায় এসে তাঁকে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যান। পুলিশের এই ভূমিকায় খুশি বিশ্বনাথবাবু ও তাঁর পরিবার সদস্যরা। বিশ্বনাথবাবু এদিন বলেন, “দুই সিভিক ভলেন্টিয়ার তাঁকে রাস্তা থেকে উদ্ধার না করলে ভয়ানক বিপদ ঘটে যেতে পারত। ব্যাগে থাকা টাকাও হয়তো আর পেতাম না। দুই সিভিক ভলেন্টিয়ারের প্রতি আজীবন কৃতজ্ঞ থাকব । ”

Related Articles

Back to top button
Close