fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ঠাকুর দেখতে বেড়িয়ে নিখোঁজ দুই বোন, তদন্তে পুলিশ

মিল্টন পাল, মালদা: ঠাকুর দেখতে বেড়িয়ে একই সঙ্গে নিখোঁজ দুই বোন। সোমবার রাতে এই ঘটনার পর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও দুই মেয়েকে না পেয়ে বুধবার সকালে ইংরেজবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। পরিবারের অভিযোগ দুই নাবালিকা মেয়ে নারী পাচারকারী চক্রের খপ্পরে পরতে পারে বলে আশঙ্কা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মালদা শহরের উত্তর বালুচর এলাকা বাসিন্দা তথা পেশায় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সঞ্জীব রবিদাস। তার দুই মেয়ে নিশা (১৪) এবং টুম্পা রবিদাস (১৫)।স্থানীয় স্কুলের অষ্টম ও নবম শ্রেণীতে পাঠরত। সোমবার দশমীর দিনে রাতে বাড়ি থেকে ওই দুই নাবালিকা ঠাকুর দেখার নাম করে বাড়ি থেকে বের হয়। তারপর গভীর রাত পর্যন্ত তারা বাড়িতে না আসায় বাড়ির লোকেরা আত্মীয়-স্বজনদের বাড়ি খোঁজাখুঁজি শুরু করে। মঙ্গলবার পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ চালিয়ে ওই দুই নাবালিকার সন্ধান না মেলায়, অবশেষে বুধবার নিখোঁজ দুই মেয়ের বিষয়ে ইংরেজবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

নিখোঁজ দুই নাবালিকার অভিভাবক সঞ্জীব রবিদাস জানান, এরকম কোনও দিনই হয়নি যে, তাদের দুই মেয়ে কোথাও গিয়ে অনেক রাত পর্যন্ত বাইরে থেকেছে। তাই পরিবারের আশঙ্কা তাদের দুই নাবালিকা মেয়ে নারী পাচার চক্রের খপ্পরে পড়ে থাকতে পারে। পুরো ঘটনাটি নিয়ে অবিলম্বে তার দুই নাবালিকা মেয়েকে উদ্ধারের ব্যাপারে ইংরেজবাজার থানার পুলিশের কাছে অভিযোগের পাশাপাশি পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি জানিয়েছেন পরিবারের লোকেরা।

ইংরেজবাজার থানা সূত্রে জানা গিয়েছে,দুই নিখোঁজ নাবালিকার মধ্যে একজনের কাছে মোবাইল ছিল। সেই মোবাইলের সূত্র ধরেই তাদের খোঁজ চালানো হচ্ছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close