fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আমফান মোকাবিলায় প্রস্তুত রাজ্য এল এনডিআরএফের দুটি দল

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শনিবার সন্ধ্যার মধ্যেই ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত আমফান। দ্রুত গতিতে প্রথমে উত্তর মুখী হলেও, পরে বাঁক নিয়ে তার উত্তর- পূর্ব দিকে ধীরে ধীরে এগোবে। এখনও পর্যন্ত যা গতিপ্রকৃতি তাতে মঙ্গল, বূধবার নাগাদ এ রাজ্যের উপকূলে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা। প্রশাসনও ঘূর্ণিঝড়ের মোকাবিলায় তৈরি। এদিন সন্ধ্যায় এনডিআরএফের দুটি দল রাজ্যে এসে পৌঁছেছে। একটি দল মোতায়েন থাকবে কাকদ্বীপে, অন্যটি সাগরদ্বীপে।

আরও পড়ুন: পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে আর নাটক করবেন না, মমতাকে খোঁচা রাহুলের

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, রবিবার ঘূর্ণিঝড় আরও শক্তিশালী হবে। মঙ্গলবার এই ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ হবে ঘণ্টায় ১৭০ থেকে ২০০ কিলোমিটার। তবে স্থলভাগের দিকে মতো এগোবে গতি কিছুটা কমবে। কিন্তু স্থলভূমিতে আছড়ে পড়ার সময় কতটা শক্তি বাড়াবে এখনই বলা কঠিন। এমনটাই জানাচ্ছেন আবহবিদরা। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরের উপর গভীর নিম্নচাপটি ওড়িশার পারাদ্বীপ থেকে ১ হাজার ৬০ কিলোমিটার, দিঘা থেকে ১ হাজার ২২০ কিলোমিটার, বাংলাদেশের খেপুপাড়া থেকে ১ হাজার ৩৩০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close