fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লকডাউনের সুফল মিলছে উদয়নারায়ণপুরে, সংক্রমণের হার কমছে

পাপ্পা গুহ, উলুবেড়িয়া: করোনা সংক্রমণ রুখতে নতুন করে লকডাউন চালু হওয়ার সুফল মিলল হাওড়া জেলার অন্যতম করোনা হটস্পট উদয়নারায়ণপুরে। নতুন করে লকডাউন শুরু হওয়ায় করোনা সংক্রমণের হার এক লাফে অনেকটাই  কমেছে এই বিধানসভা এলাকায়। প্রশাসন সূত্রে খবর আগে

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা যেখানে ১০ শতাংশে ছিল নতুন করে লকডাউনের ফলে মাত্র ১০ দিনেই সেটা নেমে দাঁড়িয়েছে ৫ শতাংশে। আর সংক্রমণের হার কমায় স্বস্তিতে উদয়নারায়ণপুর ব্লক প্রশাসন। করোনা সংক্রমণ রুখতে কেন্দ্রীয় সরকার গত ২৫ শে মার্চ থেকে সারা দেশে লকডাউন ঘোষণা করায় করোনা সংক্রমণের হার অনেকটাই কম ছিল। যদিও পরবর্তী দুটি ধাপে লকডাউন কিছুটা শিথিল করায় সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে। রাজ্যের বিভিন্ন জেলার পাশাপাশি হাওড়া জেলার উদয়নারায়ণপুর প্রথমদিকে সেভাবে করোনা সংক্রমণ না হলেও পরিযায়ী শ্রমিক আসার পরেই এই ব্লকেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়তে থাকে। আর তার প্রমাণ মেলে কয়েকদিন আগে হাওড়া জেলা প্রশাসনের ঘোষণা করা কনটেনমেন্ট জোনের তালিকায়।

[আরও পড়ুন- গোষ্ঠী সংক্রমণের কথা স্বীকার করে সপ্তাহে ২দিন সম্পূর্ণ লকডাউনের ঘোষণা নবান্নের]

দেখা যায় উলুবেড়িয়া মহকুমার ৪০টি এলাকার মধ্যে উদয়নারায়ণপুরেই আছে ১১টি কনটেনমেন্ট জোন। আর এতেই ব্লক প্রশাসনের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ে। এরপরেই করোনা সংক্রমণ রুখতে গত ১১ জুলাই থেকে গোটা উদয়নারায়নপুর ব্লক এলাকাতেই পুনরায় লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন। আর এর সুফলও মেলে।  রবিবার জেলা স্বাস্থ্য দফতর থেকে জেলায় যে কন্টেইনমেন্ট জোনের তালিকা প্রাশ করা হয় তাতে উদয়নারায়ণপুর ব্লকে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা ১১ থেকে কমে দাড়ায় ৬। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রের খবর ১১ জুলাই এর আগে পর্যন্ত উদয়নারায়ণপুরে ১,১০০ লোকের লালা রসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল তাতে শতাধিক মানুষের শরীরে করোনা সংক্রমণের খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল যেটা প্রায় ১০ শতাংশ। আর লকডাউনের পরে ২৩৮ জনের লালা রসের নমুনা পরীক্ষার পর দেখা গেছে মাত্র ১৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। শতকরা হিসাবে যা ৫ শতাংশের একটু বেশী।

ব্লক প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দফতর সূত্রের খবর নিয়মিত পরীক্ষা ও করোনা আক্রান্ত রোগীদের খোঁজ পাওয়ার পরে তাদের সংস্পর্শে আসা মানুষজনদের খুঁজে হোম কোয়ারেন্টাইন করা এবং তাঁদের লালা রসের নমুনা পরীক্ষা করার ফলেই সংক্রমণ কমিয়ে আসা সম্ভব হয়েছে। এদিকে উদয়নারায়ণপুরে সংক্রমণ অনেকটাই কমে যাওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন হাওড়া জেলা তৃণমুল কংগ্রসের (গ্রামীণ) কো-অর্ডিনেটর তথা উদয়নারায়ণপুরের বিধায়ক সমীর পাঁজা। তিনি বলেন, প্রশাসন লকডাউন কার্যকর করার ক্ষেত্রে মানুষ প্রশাসনকে সাহায্য করায় সংক্রমণের হার কমছে।

Related Articles

Back to top button
Close