fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে রাষ্ট্রপুঞ্জে ফের প্রস্তাব গৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা, নিউইয়র্ক: এ বার নিয়ে টানা চার বার রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ পরিষদে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছেন রাষ্ট্রপুঞ্জে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা। তিনি বলেছেন, ‘মায়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিম ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানবাধিকার বিষয়ক’ প্রস্তাবটি রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ পরিষদের তৃতীয় কমিটিতে বিপুল ভোটে চতুর্থ বারের মতো গৃহীত হয়েছে।’

রাবাব ফাতিমা এদিন জানান, ‘ওয়াইসি ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন যৌথভাবে প্রস্তাবটি উত্থাপন করে। আর এই প্রস্তাবে সমর্থন জানান ১০৪টি দেশ। প্রস্তাবের সমর্থনে বক্তব্য রাখেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষে জার্মানির স্থায়ী প্রতিনিধি এবং ওআইসি’র পক্ষে সৌদি আরবের স্থায়ী প্রতিনিধি।’ তিনি এদিন জানান, ‘মায়ানমারে মানবাধিকার লঙ্ঘন-সহ নানা সহিংসতার শিকার হচ্ছেন রোহিঙ্গা মুসলিম ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষজন। তাই,চতুর্থ বারের এই প্রস্তাবটিতে মায়ানমারকে সুনির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্যও আহ্বান জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন- করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ…নিউইয়র্কে ফের বন্ধ হল স্কুল

এরমধ্যে রয়েছে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব প্রদান-সহ সমস্যাটির মূল কারণ খুঁজে বের করা, প্রত্যাবর্তনের উপযোগী পরিবেশ তৈরি করে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও স্থায়ী প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করা, প্রত্যাবর্তনের ক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধির পদক্ষেপ হিসেবে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সংঘটিত অপরাধের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের জবাবদিহি নিশ্চিত করা।’ একইসঙ্গে রাবাব ফাতিমা বলেন, এক মিলিয়নেরও বেশি বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাকে আশ্রয়দানকারী দেশ হিসেবে বাংলাদেশ অব্যাহত ভাবে এই সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধানের পথ খুঁজছে, যা নিহিত রয়েছে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবর্তনের মধ্যে।’

 

Related Articles

Back to top button
Close