fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

মর্মান্তিক… বাম শাসিত কেরলে প্রসূতিকে করোনা সন্দেহে ফিরিয়ে দিল হাসপাতাল, গর্ভেই মৃত্যু যমজ সন্তানের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ফিরিয়ে দিয়েছিল একের পর এক হাসপাতাল। সারাদিন বিভিন্ন হাসপাতালে ঘোরার পর অবশেষে পেটের মধ্যেই মৃত্যু হল যমজ সন্তানের। বাম শাসিত কেরলের এই ঘটনায় হতবাক সকলেই। কেরলের মল্লপুরমে গত শনিবার মঞ্জরী শরীফ নামে ২০ বছরের এক মহিলার প্রসব যন্ত্রণা শুরু হয়। শনিবার সকাল সাড়ে চারটের সময় মঞ্জরীকে মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যান তাঁর স্বামী৷ প্রথম মেডিক্যাল কলেজে তাঁকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় বেড না থাকার কারণ দেখিয়ে। এরপর আরও দুটি হাসপাতালেও তাঁকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

এই দুটি  হাসপাতাল তাঁকে ফিরিয়ে দিয়ে বলা হয় যে, মহিলার করোনা পসিটিভ রয়েছে। তিনটি হাসপাতাল ঘোরার পর শনিবার সন্ধ্যায় তিনি একটি হাসপাতালে ভর্তি হতে পারেন৷ রবিবার সন্ধ্যায় তাঁর সি সেকশন করা হয়৷ কিন্তু গর্ভেই তাঁর ২ টি সন্তানের মৃত্যু হয়৷

[আরও পড়ুন- ব্যান্ড পার্টি বাজিয়ে টপ টেন কুখ্যাত দুষ্কৃতীর কয়েক কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল যোগী সরকার]

মহিলার স্বামী এনসি শোরিফ জানিয়েছেন যে, শনিবার সন্ধ্যায় ওই প্রসূতির শরীরে নানারকম অসুবিধা শুরু হওয়ায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ সেখানেই তাঁর করোনা আছে সন্দেহে কোনও হাসপাতাল ভর্তি নিতে চায়নি। তাঁকে একটি -দুটি নয় একেবারে তিনটি হাসপাতালের কেউই ভর্তি নেয়নি৷ অবশেষে গর্ভের মধ্যেই মৃত্যু হয় দুটি সন্তানের।

মহিলার স্বামী আরও জানিয়েছেন যে, সেপ্টেম্বরের শুরুতে তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী-র কোভিড রিপোর্ট পসিটিভ এসেছিল৷ কিন্তু ১৫ সেপ্টেম্বরের রিপোর্ট নেগেটিভ আসে৷ কিন্তু তবুও তাঁর করোনা পসিটিভ অজুহাতে কোনও হাসপাতালই তাঁকে ভর্তি নিতে চায়নি৷ ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন কেরলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী৷

 

Related Articles

Back to top button
Close