fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণদেশপশ্চিমবঙ্গশিক্ষা-কর্মজীবনহেডলাইন

নিট পরীক্ষার্থীদের ধৈর্য, সংযম ও আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে পরীক্ষা দেওয়ার বার্তা কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী নিশঙ্কের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহের মধ্যে দিয়ে আজ শুরু মেডিক্যালের প্রবেশিকা পরীক্ষা বা নিট। গোটা দেশের প্রায় ১৬ লক্ষ পরীক্ষার্থী আজ পরীক্ষায় বসছেন। এই অবস্থায় ছাত্র-ছাত্রীদের মনোবল বাড়াতে বার্তা দিলেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশঙ্ক। প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশে শুভেচ্ছা জানিয়ে কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কোভিড গাইডলাইন মেনে পরীক্ষা দাও, নিজের আত্মবিশ্বাস ধরে রাখো।

রবিবার টুইট বার্তায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আজ আমি নিট পরীক্ষায় বসতে চলা সব পরীক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। আমি আত্মবিশ্বাসী যে জয়েন্টের মতো নিট পরীক্ষার মধ্যেও পরীক্ষার্থীরা কোভিড গাইডলাইন মেনে চলবে। সেইসঙ্গে ধৈর্য, সংযম ও আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে পরীক্ষা দেবে তারা।’

প্রসঙ্গত, করোনা আবহে পরিস্থিতি বিধ্বস্ত। এই অবস্থায় অনেকেই অবসাদে ভুগছেন বিভিন্ন কারণে। এদিকে তার মধ্যে শুরু মেডিক্যালের প্রবেশিকা পরীক্ষা বা নিট। চাপান-উতোর অবস্থার মধ্যে যাতে পরীক্ষার্থীরা কোনওভাবে মনোবল হারিয়ে না ফেলেন সেই উদ্দেশে এদিন এই বার্তা দেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী। সেইসঙ্গে কেন্দ্র ও সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পরে এই পরীক্ষার যাবতীয় বন্দোবস্ত করার জন্য রাজ্য সরকারগুলিকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

আরও পড়ুন:নিট পরীক্ষার্থীদের জন্য আজ সকাল থেকে ১০ টা থেকে চলবে মেট্রো, রাস্তায় থাকছে অতিরিক্ত বাস

রাজ্যগুলিও পরীক্ষার্থীদের কথা মাথায় রেখে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে আগের দিনের লকডাউন তুলে নেওয়া হয়েছে, নিট পরীক্ষার্থীদের জন্য রবিবার চলবে মেট্রো পরিষেবা। রাস্তায় নামানো হয়েছে অতিরিক্ত বাস। জেলাগুলি থেকে কলকাতামুখী বাস পরিষেবা চলছে। অন্যদিকে পাঞ্জাবও সপ্তাহ শেষের কারফিউ তুলে নিয়েছে। একই ব্যবস্থার কথা জানিয়েছে মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগঢ়ের মতো রাজ্যও। মুম্বই ও বিহারে পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ট্রেন চালানোর বন্দোবস্ত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্ট ও কেন্দ্রের নির্দেশ অনুযায়ী এই পরীক্ষার দায়িত্ব রয়েছে ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সির উপর। পরীক্ষার জন্য একাধিক নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। তার মধ্যে সামাজিক দূরত্ব, মাস্ক ও গ্লাভস পরা, স্যানিটাইজার ব্যবহারের মতো বিষয়গুলিকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের পরেই তাদের পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকতে দেওয়া হবে। যেসব পরীক্ষার্থীর তাপমাত্রা বেশি থাকবে, তাদের জন্য আইসোলেশন রুমের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। সেখানে তারা পরীক্ষা দেবে।

Related Articles

Back to top button
Close