fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

মার্কিন-সিরিয়া দ্বন্দ্ব, আসাদ পুত্রের ওপর নিষেধাজ্ঞা ট্রাম্প প্রশাসনের

সংবাদ সংস্থা, ওয়াশিংটন:  এবার সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের বড় ছেলে হাফেজ আল-আসাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন সরকার। শুধু তাই নয়, মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় ১৯ বছর বয়সি হাফেজ আল-আসাদ ছাড়াও সিরিয়ার চার ব্যক্তি ও ১০ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, বাশার আল-আসাদ সরকার সিরিয়ার কোটি কোটি ডলারের রাজস্ব দেশের জনগণের উন্নয়নে খরচ না করে যুদ্ধের কাজে ব্যয় করছে। সিরিয়ার অর্থনীতি ধ্বংস করে ফেলার জন্যও মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় বাশার আল-আসাদ সরকারকে অভিযুক্ত করেছে। মার্কিন সরকার অভিযোগ করছে, সিরিয়া সরকারের এসব কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা করছে হাফেজ আল-আসাদসহ নতুন করে আরোপিত নিষেধাজ্ঞার শিকার ব্যক্তিবর্গ ও প্রতিষ্ঠানগুলি।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ মে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার ওপর এক বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন। যা, ২০২১ সালের ১ জুন পর্যন্ত সিরিয়ার বিরুদ্ধে বহাল থাকবে। জানা যাচ্ছে, গত এক দশক ধরে সিরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে রেখেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে দামাস্কাস। অন্যদিকে, আমেরিকা, ইজরায়েল, সৌদি আরব ২০১১ সাল থেকে সিরিয়ার ওপর সহিংসতা চাপিয়ে দিয়েছে। তবে সিরিয়ার সেনাবাহিনী গত দুই বছরে বিদেশি মদদপুষ্ট প্রায় সবগুলো সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে পরাজিত করে প্রায় গোটা দেশের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছে।

উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের বাবার নাম ছিল হাফেজ আল-আসাদ। ২০০০ সালে তার স্বাভাবিক মৃত্যু হওয়ার পর বাশার আল-আসাদ দেশের ক্ষমতা গ্রহণ করেন। বাশার আল-আসাদের বড় ছেলে হাফেজের জন্ম হয় ২০০১ সালে এবং তার বয়স বর্তমানে ১৯ বছর। আরব বিশ্বে বহু পিতা নিজের বাবার নামে সন্তানের নাম রাখেন এবং এটি সেখানকার একটি প্রচলিত রেওয়াজ।

Related Articles

Back to top button
Close