fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রাস্তায় যত্রতত্র পড়ে থাকছে ব্যবহৃত পিপিই কিট, চাঞ্চল্য বারাসতে

শ্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা: বারাসত হাসপাতালের ছায়া এবার বারাসতের ডায়াগোনস্টিক সেন্টার সংলগ্ন এলাকায়। পৌরসভার প্রশাসক মন্ডলী কাঠগড়ায় তুলছেন ডায়াগোনস্টিক সেন্টারকে।করোনা সংক্রমণের ক্রমবর্ধমান আবহে ব্যবহৃত পিপিই কিট পড়ে আছে ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় প্রকাশ্য বারাসতের নবপল্লী এলাকায় রাস্তার পাশে। একপাশে বারাসতের একটি ডায়াগোনস্টিক সেন্টার যেখানে বিভিন্ন প্যাথলজিক্যাল টেস্ট হয়।

লকডাউনের সকালে শুক্রবার এলাকার মানুষ নবপল্লী সার্কুলার রোডে পিপিই কিট পড়ে থাকতে দেখেই শিউরে উঠলেন। তারা কাছে দাঁড়িয়ে থাকা সিভিক ভলেন্টিয়ারদের বিষয়টি জানিয়েছিলেন। তথাপি দীর্ঘ সময় ধরে পড়ে থাকল ব্যবহৃত কিট। আর এ বিষয়ে অস্বস্তি বাড়তে থাকল এলাকাবাসীর। অবশেষে পৌরসভার প্রশাসকমন্ডলীর স্বাস্থ্যর দায়িত্বে থাকা প্রশাসক চম্পক দাস সরাসরি কাঠগড়ায় তুললেন নবপল্লীর ডায়াগোনস্টিক সেন্টারটিকে। চম্পক  দাস ডায়াগোনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে চরম গাফিলতির অভিযোগ তুললেন  গণমাধ্যমের সামনে। তিনি  বিষয়টির বিশদ খোঁজখবর নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, অতি সম্প্রতি রাজ্যের একাধিক মন্ত্রী জানিয়েছিলেন উত্তর চব্বিশ পরগনায় কোভিড সংক্রমণ বাড়ছে সচেতনতার অভাবে। বারাসত হাসপাতালে প্রকাশ্যে পিপিই কিট পড়ে থাকার পরে  চিকিৎসক থেকে সাধারণ মানুষ সকলেই সরব হয়েছিলেন। তাতেও বিশেষ হুঁশ ফেরেনি অনেকেরই। বারাসাতে  নবপল্লীর ডায়াগোনস্টিক সেন্টারের পাশে প্রকাশ্যে পিপিই কিট সেরকম বার্তাইদিচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close