fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ভাতারে রেশনে নিম্নমানের চাল দেওয়ার অভিযোগে বিক্ষোভ গ্রাহকদের

দিব্যেন্দু রায়,ভাতার: রেশনে নিম্নমানের চাল দেওয়ার অভিযোগে  গ্রাহকদের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হল ভাতারের বামশোর গ্রামের এক রেশন ডিলারকে। মঙ্গলবার গ্রামবাসীরা রেশন ডিলারের কাছে রেশন সামগ্রী আনতে গিয়ে দেখেন নিম্নমানের চাল দেওয়া হচ্ছে। এই দেখে গ্রাহকরা ওই চাল নিতে অস্বীকার করেন। পাশাপাশি  রেশন দোকানের সামনে  শুরু হয় তুমুল বিক্ষোভ। শেষে রেশন ডিলার গ্রাহকদের আশ্বস্ত করলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

জানা গেছে, এদিন বামশোর গ্রামের রেশন দোকানে চাল, আটা, ডাল প্রভৃতি রেশন সামগ্রী দেওয়া হচ্ছিল। অনান্য সামগ্রী ঠিকঠাক থাকলেও চালের গুনগত মান নিয়ে তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেন গ্রাহকরা। স্থানীয় বাসিন্দা শেখ রফিকের অভিযোগ, “একে চালের রঙ লাল, তার উপর  পোকায় ভর্তি। মানুষ তো দুরের কথা গরু-ছাগলেও ওই চাল খাবে না।”

[আরও পড়ুন- করোনা আবহে বন্ধ সামাজিক অনুষ্ঠান, আদিবাসী এলাকায় শালপাতার থালা-বাটি শিল্পে জোর ধাক্কা]

জানা গেছে, গ্রামবাসীরা অন্যান্য সামগ্রী নিলেও চাল নিতে অস্বীকার করেন। পাশাপাশি নিম্নমানের চাল দেওয়ার অভিযোগ তুলে রেশন দোকানের সামনে জড়ো হয়ে তুমুল বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন গ্রামবাসীরা। গ্রাহকরা জানিয়েছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মূলত  রেশনের বিনামুল্যের চালের উপরেই তাঁদের নির্ভর করতে হচ্ছে।  ফলে  ওই পোকা ধরা চাল বদলে ভালো চাল না দিলে গোটা সপ্তাহ জুড়ে তাঁদের সপরিবারে অভুক্ত  থাকতে হবে। ওই চালের বদলে অবিলম্বে তাদের ভালো চাল দেওয়া হোক বলে দাবি জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা।

এদিকে নিম্নমানের চাল দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন রেশন ডিলার কলিমুর রহমান। তাঁর সাফাই, “সরকারিভাবে আমরা যা চাল পেয়েছি তাই গ্রাহকদের দিচ্ছি। দেখতে পাচ্ছি এবারের চালের মান সত্যই খুব খারাপ। তাই বাধ্য হয়ে এদিন চাল বিলি বন্ধ করে দিয়েছি।  পাশাপাশি বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।”

 

Related Articles

Back to top button
Close