fbpx
হেডলাইন

৬৭টি নতুন ডিজাইন নিয়ে ভার্চুয়াল ফ্যাশন শো তমলুকে

ভাস্করব্রত পতি, তমলুক: ভারতের বুকে এই প্রথমবার ভার্চুয়াল ফ্যাশন শো অনুষ্ঠিত হল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার তমলুকের প্রত্যাশা গেস্ট হাউসে। আয়োজনে জেলার অন্যতম শিল্প ও কারিগরি সংস্থা “শূন্য বুটিক”। স্বভাবতই এ ধরনের ফ্যাশন শো কে ঘিরে উন্মাদনা শুরু হয়েছে।

সামনে দুর্গাপুজো উপলক্ষে এবং লকডাউনের কথা মাথায় রেখেই ‘শূন্য বুটিক’ তাঁদের পূজোর কালেকশন মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য এই ধরনের ভার্চুয়াল ফ্যাশন শোর আয়োজন করেছে। দারুন সাড়া পড়েছে চারিদিকে। সংস্থার প্রধান কার্তিক মান্না বলেন, এই মুহূর্তে সারা ভারতে আমাদের চলাচল বন্ধ। অথচ আমরা নিজেরাই নিজেদের উৎপাদিত পণ্য বিক্রি করতে পারতাম। লকডাউনে সেইভাবে বিক্রি করা যাচ্ছেই না। এমতবস্থায় এধরনের উদ্যোগ নিতে হচ্ছে।

 

এই লকডাউন পরিস্থিতিতে বুটিকের কর্মীরা পুনরায় তাঁদের কাজে ফিরে পাওয়ার জন্য তাঁরাও খুব আনন্দিত ও উৎসাহিত। শুধু কর্মীরাই নয় এই Ramp শো তে অংশগ্রহণ করতে আসা মডেলরাও পুনরায় তাঁদের কাজে ফিরে আসার জন্য এবং তাঁদের কাজ ভার্চুয়ালি মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন। এই ফ্যাশন শো তে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মডেলরা অংশগ্রহণ করেন। মোট ৬৭ টি নতুন ডিজাইন তুলে ধরা হয়েছে এদিন। এছাড়াও আরো অনেক ডিজাইন দেখানো হয়। কার্তিক মান্না বলেন, প্রতিটি পণ্যই ‘হ্যাণ্ড মেড ইন ইণ্ডিয়া’। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ‘আত্মনির্ভর ভারত’ এর সফল বাস্তবায়ন ঘটানো হয়েছে এখানে।

এবারের ভার্চুয়াল ফ্যাশন শোতে একদম নতুন পণ্য ছিলো ‘কাপ্তান’। বিভিন্ন বয়সের মহিলাদের জন্য ৩৪ থেকে ৪৪ পর্যন্ত সাইজের মেয়েদের কথা ভেবেই অত্যন্ত আকর্ষণীয় এবং আরামদায়ক এই কাপ্তান। এ ধরনের শো দেশ বিদেশের আগ্রহী মানুষের কাছেও পৌঁছে দিয়েছে রকমারি পোশাকের সম্ভার। লকডাউন পরিস্থিতিতেও নিজেদের পণ্য তুলে ধরার এই প্রয়াস আসলে ‘ডিজিটাল ইণ্ডিয়া’র সার্থক উদাহরণ।

Related Articles

Back to top button
Close