fbpx
দেশহেডলাইন

জিও সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামতে ভোডাফোন-আইডিয়া জুটি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: টেলিকম সংস্থা আইডিয়া এবং ভোডাফোন সংযুক্ত হওয়ার পরে এবার ফের নাম ও লোগো পরিবর্তন। ভোডাফোন আইডিয়ার নতুন নাম হলে ‘ভিআই’। আইডিয়ারও আগে ব্র্যান্ড নাম ছিল ‘আইডিয়া সেলুলার’। একটা সময়ে দেশের অন্যতম প্রধান টেলিকম সংস্থা ছিল ‘ম্যাক্স টাচ’। পরে সেই নাম বদলে হয় ‘অরেঞ্জ’। এর পরের বদলে নাম হয় ‘হাচ’। তার পরে ভোডাফোন।

সোমবার সংস্থার পক্ষে জানানো হয়েছে, ভোডাফোন আইডিয়া এবার রিব্র্যান্ডিং হয়ে ‘ভিআই’ হল। ব্রিটিশ টেলিকম সংস্থা ভোডাফোন গ্রুপ বছর তিনেক আগেই ভারতের কুমারমঙ্গলম বিড়লার আইডিয়া সেলুলার অধিগ্রহণ করে। এর পর থেকে সংস্থার পরিচিতি ছিল ভোডাফোন আইডিয়া হিসেবে। দুই সংস্থার লোগোই ব্যবহার করা হত। এবার সেটা এক হয়ে নতুন ব্র্যান্ড নাম ও লোগো চালু হল।

তিন বছর আগেই ভারতীয় টেলিকম সংস্থা আইডিয়া সেলুলার লিমিটেডের সাথে বাণিজ্যিকভাবে যুক্ত হয়েছিল বিদেশি টেলিকম অপারেটর ভোডাফোন। এর ফলে ভারতীয় বাজারের সিংহভাগ দখল নিয়েছিল তারা। গড়ে উঠেছিল তীব্র লড়াই ভারতীয় টেলিকম সংস্থা মুকেশ আম্বানির জিওর সাথে। বাজার ধরতে জিও সেই সময় থেকেই ঘোষণা করে একাধিক আকর্ষণীয় রিচার্জ প্যাক যা খুবই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে দেশবাসীর মধ্যে। নতুন কানেকশন নেওয়ার পাশাপাশি অনেকেই নিজের ব্যবহার করা পুরনো নম্বর মোবাইল পোর্টেবিলিটির মাধ্যমে জিওতে ট্রানস্ফার করেন। তাই ক্রমেই কোণঠাসা হয়ে পড়ে ভোডাফোন-আইডিয়া,ভারতী এয়ারটেল এবং রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বিএসএনএল এর মত দেশের বাকি মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডার কোম্পানিরা।

জিওর সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বাজার ধরতে নেমে পড়ে ভোডাফোন আইডিয়া লিমিটেড। সমতুল্য রিচার্জ প্যাক আনতে দেখা যায় তাদের। কিন্তু আশানুরূপ সাড়া না পাওয়ায় এবার নতুন ব্যবসায়িক চিন্তা ভাবনা নিয়ে হাজির ভোডাফোন আইডিয়া লিমিটেড। নিজেদের ব্র্যান্ডকে ‘রিব্র্যান্ড’ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এবার থেকে ভোডাফোন আইডিয়ার বদলে, Vi ( ভি ) নামে বাজারে নিজেদের পরিচিত করতে চাইছে কোম্পানিটি। উন্নততম নেটওয়ার্ক সহ ভালো পরিষেবা নিয়েই আগামী দিনে মানুষের দরবারে হাজির হওয়ার চিন্তাভাবনা নিয়েছে তারা।

আরও পড়ুন: ধেয়ে আসছে কয়েক দশকের সবথেকে শক্তিশালী টাইফুন, সরানো হল ৭০ লক্ষ মানুষকে

সোমবার ভোডাফোন গ্রুপের সিইও নিক রিড এক ভার্চুয়াল কনফারেন্সের মাধ্যমে এই ঘোষণা করেন। এক সময়ে ভোডাফোন আইডিয়া ভারতের সবচেয়ে বড় টেলিকম সংস্থা ছিল। কিন্তু রিলায়েন্স জিও আসার পর থেকেই পিছু হঠতে থাকে। ৪০ কোটি গ্রাহকের থেকে প্রায় ১০ কোটি গ্রাহক চলে যায় গত কয়েক বছরে। কম পয়সায় টেলিফোন ও ইন্টারনেটের সুবিধা দিয়ে বাজারে আসা মুকেশ আম্বানির জিও এখন দেশের সবচেয়ে বড় টেলিকম সংস্থা। গ্রাহক সংখ্যা ৪০ কোটির বেশি। এদিনের ভার্চুয়াল কনফারেন্সে আদিত্য বিড়লা গ্রুপ তথা ভোডাফোন আইডিয়ার চেয়ারম্যান কুমারমঙ্গলম বিড়লাও উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, ‘বিশ্বের মধ্যে টেলিকম ক্ষেত্রে ভারত দ্বিতীয় বৃহত্তম বাজার। ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে ভারত বিশ্বে প্রথম। দেশের ১২০ কোটি মানুষ ফোন ব্যবহার করেন। দেশের ৫ লাখ গ্রামে রয়েছে নেটওয়ার্ক।’ আগামী দিনে ভারতে ডিজিটাল বিপ্লব আনার ক্ষেত্রে সংস্থা কাজ করবে বলেও এদিন জানান কুমারমঙ্গলম। ভোডাফোন অবশ্য বেশ কিছুদিন ধরেই সমস্যার মধ্য দিয়ে চলছে। আইডিয়ার সঙ্গে হাত মেলানোর পরে সংস্থা লাভের মুখ দেখেনি। একটা সময়ে ভারতে ভোডাফোন ব্যবসা গুটিয়ে ফেলতে পারে এমন সম্ভাবনাও তৈরি হয়েছিল। এখনও এজিআর বকেয়া বাবদ ৫০ হাজার কোটি টাকা কেন্দ্রীয় সরকারকে চোকাতে হবে। যদিও সম্প্রতি এর জন্য সুপ্রিম কোর্ট ১০ বছর সময় দেওয়ায় অনেকটাই স্বস্তিতে সংস্থা। এই পরিস্থিতিতে সংস্থা বাজার থেকে ২৫ হাজার কোটি টাকা তোলার পরিকল্পনা নিয়েছে। এর জন্য ডিবেঞ্চার ও শেয়ার ইস্যু করা হবে জানানো হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close