fbpx
আন্তর্জাতিকব্লগহেডলাইন

ভোট ঘনাচ্ছে, বাড়ছে করোনা, আগাম ভোট ও খরচে রেকর্ড হচ্ছে

শিতাংশু গুহ, নিউইয়র্ক: ভোটের দিন এগিয়ে আসছে, সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। শুক্রবার মোট আক্রান্ত ছিল ৯৯৩২১ জন। যা একদিনে আক্রান্তের আমেরিকান রেকর্ড এবং বিশ্ব-রেকর্ড। একই সঙ্গে এবার আমেরিকায় মেইল-ইন, এবসেন্টি ও আগাম ভোট সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে।
পুরো আমেরিকায় প্রায় ৯০ মিলিয়ন আমেরিকান ইতিমধ্যে ভোট দিয়েছেন, যা মোট ভোটের অর্ধেক বা সামান্য বেশি। নর্থ ক্যারোলিনায় ৬০% রেজিস্টার্ড ভোটার ইতিমধ্যে ভোট দিয়েছেন। টেক্সাসে ৯.৬ মিলিয়ন মানুষ ভোট দেওয়ার কাজ সম্পন্ন করেছেন, যা ২০১৬’র মোট প্রদত্ত ভোটের চেয়ে ৭.৮% বেশি। ফ্লোরিডায় প্রায় ৮.৩ মিলিয়ন ভোটার আগাম ভোট দিয়েছেন।

মার্কিন নির্বাচনে খরচও এবার রেকর্ড পরিমাণ। ২০২০ মার্কিন নির্বাচনে খরচ হচ্ছে মাত্র ১৪ বিলিয়ন ডলার। ১৪ বিলিয়ন ডলার মানে ১৪০০০ মিলিয়ন ডলার (১-এর সামনে ছয়টি শূন্য থাকলে হয় ১ মিলিয়ন, আর ১০০০ মিলিয়নে ১বিলিয়ন।)। এই সংখ্যা ২০১৬’র নির্বাচনের প্রায় দ্বিগুণ। এরমধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে খরচ হবে ৬.৬ বিলিয়ন, এবং কংগ্রেস-সিনেটে ৭বিলিয়ন। ডেমোক্র্যাটরা এবার প্রায় দ্বিগুণ খরচ করছে।
সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শনিবার কোভিড-১৯ টেস্ট নেগেটিভ এসেছে। ভাইস-প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স শনিবার নর্থ ক্যারোলিনায় ক্যাম্পেইন করেছেন। কমলা হ্যারিস শনিবার ফ্লোরিডাতে। ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন ঐক্যের কথা বলছেন, কিন্তু মিনেসোটায় তাঁর সমাবেশে একদল ট্রাম্প সমর্থক ঢুকে পড়ে গাড়ির হর্ন বাজাতে থাকলে তিনি তাদের ‘আগলি ফোকস’ বলে মন্তব্য করেন।

ফ্লোরিডাতে ফাইট জমজমাট, সমীক্ষা বলছে ৫০:৫০। সমীক্ষার ওপর মানুষের আস্থা নেই, তবে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে, তা স্বীকার্য। ন্যাটে সিলভার বলেছেন, বাইডেন ফ্লোরিডা জিতলে তিনি প্রেসিডেন্ট হবেন। নির্বাচনের মাত্র তিনদিন আগে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ফ্র্যাকিং (উচ্চ চাপে খনিজ ভাঙা) নিষিদ্ধ হলে ভালো-মন্দ কি হতে পারে তা খতিয়ে দেখার জন্যে শনিবার একটি মেমো ইস্যু করেছেন। উল্লেখ্য, বাইডেন-কমলা ফ্র্যাকিং ইস্যুতে তাদের অবস্থা পরিবর্তন করেছেন।
জো বাইডেন নির্বাচনী রাতে, ৩ নভেম্বর উইলমিংটন, ডেলওয়ারে থাকবেন। সেখান থেকেই তিনি বিজয়ী বা পরাজয় মেনে নেওয়ার ভাষণ দেবেন। তার সঙ্গে থাকবেন স্ত্রী জিল বাইডেন এবং তাঁর ভাইস-প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ও স্বামী ডাগ এমহফ। ২০১৬-তে ট্রাম্প রাত ৩ টায় নিউইয়র্কে বিজয় ভাষণ দিয়েছিলেন।

ফার্স্টলেডী ম্যালেনিয়া ট্রাম্প করোনা ভাইরাস পেনডেমিক প্রশ্নে তাঁর স্বামীর ভূমিকার পক্ষে কথা বলেন। উইসকনসিনে তিনি বলেন, করোনা মোকাবিলায় যখন ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টার প্রয়োজন ছিল, ডেমোক্র্যাটরা তখন এটিকে একটি দলীয় ইস্যু বানিয়ে ফেলেছেন। ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা সম্পর্কে যাঁরা সন্দেহ সৃষ্টি করছেন তাঁদের সমালোচনা করে ম্যালেনিয়া বলেন, আমার স্বামীর নেতৃত্বেই ভ্যাকসিন আসছে।
সাবেক প্রেসিডেন্ট ওবামা মিশিগানের ফ্লিন্টে শনিবার তাঁর সাবেক ভাইস-প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পক্ষে প্রচারনা করেছেন। তিনি মুখে যে মাস্ক পরেছেন, তাতে লেখা ছিল, ‘ভোট দিন’। ওবামা বলেন, মঙ্গলবার পরিবর্তনের পক্ষে ভোট দিন। বাইডেন-হ্যারিস-কে ভোট দিয়ে ‘উন্নত আমেরিকা’র পক্ষে থাকুন। বাইডেন তাঁর সাবেক বস-র প্রশংসা করে বলেছেন, ওবামা, ‘এ প্রেসিডেন্ট অফ ক্যারেকটার’। দু’জনে ফ্লিন্টে যৌথ প্রচারনা চালান।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শনিবার পেনসিলভানিয়ার নিউটনে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন যে, তিনি পেনসিলভানিয়ায় জিতবেন। ২০১৬-তে তিনি ৫০হাজারের কম ভোটে এই রাজ্য জিতেছিলেন। তিনি পেনসিলভানিয়ায় ব্যালট ইস্যু’র প্রশ্ন তুলেন এবং করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
ভোটের ঠিক আগে আগে নিউইয়র্কের ৩৪ স্ট্রিটের ‘মেসি স্টোর’-এর চারিদিকে কাঁচের জানালা-দরজা কাঠের ব্যারিকেড দিয়ে বেঁধে দেওয়া হচ্ছে। মেসি বলেছে, সতর্কতা হিসাবে  অতিরিক্ত নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নিচ্ছে। উল্লেখ্য, বাংলাদেশী কমিউনিটি ভয় পাচ্ছে বাইডেন জিতলে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নাজুক হবে?

(মতামত নিজস্ব)

 

Related Articles

Back to top button
Close