fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আজ চার পুরনিগমের ভোটগ্রহণ, ফল ঘোষণা সোমবার

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ  শীতের আমেজ গায়ে মেখেই সকাল থেকে শুরু চার পুরনিগমের ভোট গ্রহণ। সকাল সাতটা থেকে শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ।বুথের বাইরে লম্বা লাইন।

আজ ভোট হচ্ছে শিলিগুড়ি, আসানসোল, চন্দননগর ও বিধাননগরে। বিধাননগরে ৪১, আসানসোলে ১০৬, চন্দননগরে ৩২ এবং শিলিগুড়িতে ৪৭টি ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ চলছে। ভোটের ফল ঘোষণা সোমবার।

চার পুরসভার মধ্যে আসানসোল এবং শিলিগুড়ি বিরোধী বিজেপি এবং বামফ্রন্টের কাছে বড় ভরসা৷ কারণ আসানসোল পুরনিগম এলাকায় বিধানসভা ভোটেও নজর কেড়েছিল বিজেপি। আর শেষ পুরভোটেও কংগ্রেসের সমর্থনে শিলিগুড়ি দখলে রাখতে পেরেছিল বামেরা৷

মোটের উপর ভোট শান্তিপূর্ণ হলেও কয়েকটি জায়গা থেকে বিক্ষিপ্তভাবে অশান্তির আঁচ পাওয়া গেছে।

শিলিগুড়ি পুরনিগমের সিপিএম প্রার্থী ৬ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী বর্ষীয়ান বামনেতা অশোক ভট্টাচার্য। সকাল থেকেই বিভিন্ন জায়গা ঘুরে দেখছেন তিনি। প্রাক্তন মেয়র অশোক ভট্টাচার্য জানান, মোটের উপর ভোট শান্তিপূর্ণ ভাবে চলছে। সব জায়গাতেই আমাদের পোলিং এজেন্ট গিয়েছে। সব দলেরই গিয়েছে। আশা রাখি শান্তিপূর্ণভাবে ভোট হবে। সবাই নিজের পছন্দমতো প্রার্থীকে ভোট দেবেন’।

এদিকে বিধাননগরের চিত্রটা একটু বিপরীত। ভোট শুরু হতেই ভুয়ো ভোটের অভিযোগ বিধাননগরে। বিধাননগর ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী দেবাশিস জানার তাঁরই অভিযোগ, বিএফ কমিউনিটি সেন্টারে ভোটের লাইনে একজনের কথায় অসঙ্গতি মেলে। বাবার নাম বলতে পারছিলেন না। পরে হঠাৎ-ই লাইন ছেড়ে চলে যান। দেবাশিস জানার অভিযোগ, ভুয়ো ভোটার রয়েছে।

এদিকে গন্ডোগোলের খবর মিলেছে আসানসোলে। দুই বিজেপি প্রার্থীকে আটক করেছে পুলিশ। আসানসোলের কল্যাণপুরের একটি অনুষ্ঠান বাড়িতে বহিরাগতদের রাখা হয়েছে এই অভিযোগ তুলে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে ওই দুই প্রার্থী বিক্ষোভ দেখান। এরা হলেন ২০ নম্বর ওয়ার্ডের শুভাশিস দাস ও ২২ নম্বর ওয়ার্ডের বিশ্বজিত্‍ মণ্ডল।

পাশাপাশি রানিগঞ্জের ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের ৮ নম্বর বুথে তৃণমূল এজেন্ট আসার আগেই মকপোল হওয়ার অভিযোগ। প্রিসাইডিং অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ সেক্টর অফিসে।

Related Articles

Back to top button
Close