fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অল্প বৃষ্টিতেই জেলা সদর হাসপাতালে জল থৈ থৈ

ভাস্করব্রত পতি, তমলুক : মঙ্গলবার সকালের হালকা বৃষ্টিতেই থৈ থৈ তমলুকে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সদর হাসপাতাল। নিকাশি ব্যবস্থার দৈন্যদশা আরও একবার প্রকটভাবে দেখা গেল হাসপাতাল জুড়ে। জেলার প্রধান হাসপাতালের এহেন অব্যবস্থাই দেখিয়ে দিচ্ছে জেলার স্বাস্থ্য ব্যাবস্থার চরম দুর্ভোগ সম্বলিত দুর্দশা।

এদিন হাসপাতালে ঢোকার মুখের সামনের অংশ জলে ভরপুর হয়ে যায়। সেইসাথে ইমারজেন্সি গেট চত্বরও জল পেরিয়েই যেতে হচ্ছে। হাসপাতালের মধ্যে থাকা মেডিক্যাল ওয়ার্ডের মেঝেতেও জল ছপছপ করছে। সেই নোংরা আবর্জনা ভরা জলে পা দিয়েই যেতে হচ্ছে সকলকে। ড্রেনের নোংরা জল মিশেছে এতে। হাসপাতালের বজ্র্য ভাসছে জলে। দেখার কেউ নেই।

                আরও পড়ুন: ভারত-চিন সম্পর্ক নিয়ে ফের মন্তব্য করলেন বিদেশমন্ত্রী 

অভাবনীয় এই দৃশ্য দেখে আঁতকে উঠেছেন রোগী থেকে রোগীর আত্মীয়রা। কেউ মুখ ফুটে কিছু বলতেও চাননা। এই কঠিন পরিস্থিতিতেই থাকতে হচ্ছে রোগীদের। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবী দ্রুত জল নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আসলে তাম্রলিপ্ত পৌরসভা জুড়েই নিকাশি ব্যবস্থা ভেঙে গিয়েছে বলে অভিযোগ পৌর নাগরিকদের। তার জেরে জল নির্গত হচ্ছেনা। তবে তাম্রলিপ্ত পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান দীপেন্দ্রনারায়ণ রায় বলেন, সম্ভবত কোথাও ড্রেনের জল বেরিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে ব্লক হয়ে যাওয়ার দরুন এই দুর্গতি।

পৌর এলাকায় থাকা খালগুলিতে বেআইনি ভাবে বাড়ি নির্মাণ করা হয়েছে। খালগুলি বহুদিন সংস্কারও করা হয়নি। যত্রতত্র বাড়িঘর তৈরি হয়েছে কোনো পরিকল্পনা ছাড়াই। খালগুলিতে শহরের নানা আবর্জনা ফেলার দরুন সেগুলি মজে যাওয়ার উপক্রম। বর্ষার শুরুতেই যদি এরকম পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়, পরবর্তীতে কি ভয়ঙ্কর অবস্থা অপেক্ষা করছে তাই ভেবে শঙ্কিত রোগীরা।

Related Articles

Back to top button
Close