fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

‘পরীক্ষা নিয়ে ভোট রাজনীতি করা হচ্ছে’, NEET-JEE ইস্যুতে কেন্দ্রকে তোপ মমতার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতিতে JEE ও NEET পিছনোর দাবিতে সরব রাজনীতির মহল। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের ভারচুয়াল অনুষ্ঠানেও এবার এই ইস্যুতে সুর চড়ালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । দেশজুড়ে করোনার লাগামছাড়া সংক্রমণ। প্রতিদিন ৬০ হাজার-৭০ হাজার করে মানুষ নতুন করে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। দেশের কোথাও এখনও স্বাভাবিক হয়নি গণ পরিবহণ ব্যবস্থা। বন্ধ রয়েছে লোকাল ট্রেন, মেট্রো পরিষেবা। এই পরিস্থিতিতে গায়ের জোরে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলেই তোপ দাগেন তিনি। রাজ্য সরকার করোনা আবহে পরীক্ষার বন্দোবস্ত করে পড়ুয়াদের বিপদে ফেলতে চায় না, তবে অনলাইন-অফলাইনে পরীক্ষার সম্ভাবনা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন, ‘সেপ্টেম্বরে পরীক্ষা হবে না, প্রশ্নই আসে না।তবে পুজোর আগে পরীক্ষা নেওয়া যায় কিনা সেটা ভেবে দেখা হচ্ছে। অনলাইন-অফলাইনে পরীক্ষা নেওয়া যায় কিনা দেখা হবে।’কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার ব্যাপারে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করতে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ”বাড়ির কাছাকাছি সেন্টার দেওয়া যায় কিনা দেখুন। দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে পড়ুয়াদের জানাবেন শিক্ষামন্ত্রী।”সেই সঙ্গে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশাবলী জারি করতে।

করোনা আবহেও কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নেওয়া নিয়ে নির্দেশিকা জারি করেছে ইউজিসি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, প্রথমে পরীক্ষা নেওয়ার দরকার নেই বলে জানানোর পরেও জুলাই মাসে ফের রাজ্যকে চিঠি পাঠানো হয়। সেই চিঠিতে ইউজিসি-র তরফে জানানো হয় পরীক্ষা নিতে হবে। এপ্রসঙ্গে কেন্দ্রকে বিঁধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ”পরীক্ষা নিয়ে গায়ের জোরে সিদ্ধান্ত চাপাচ্ছে। পড়ুয়াদের ওপর চাপ দিচ্ছে। পড়ুয়ারা মানসিক দুশ্চিন্তায় আছে। পরীক্ষা নিয়ে চিন্তিত অভিভাবকরাও। কেন্দ্র পড়ুয়াদের কেন বিপদে ফেলছে?”

আরও পড়ুন: ঐতিহ্যের দে বাড়ির দুর্গাপুজোয় ব্রিটিশ মহিষাসুর

শুক্রবার TMCP’র প্রতিষ্ঠা দিবসের ভারচুয়াল অনুষ্ঠান থেকেও সেকথাই আরও একবার জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্র সরকারকে নিশানা করে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, “গায়ের জোরে পরীক্ষার সিদ্ধান্তে চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে। দেশের বর্তমানে ভয়াবহ পরিস্থিতি। মন কি বাত বলছেন কিন্তু কে শুনছে সেকথা তিনি জানতে চাইছেন না কখনও।”আইআইটিগুলিতে পরীক্ষা না নিয়ে কেন NEET, JEE করা হচ্ছে, সেই প্রশ্নও কেন্দ্রকে করেন তিনি। এদিনের মঞ্চ থেকে ৯ আগস্ট ছাত্রদিবস হিসাবে পালনের কথা ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের পাশাপাশি গেরুয়া শিবিরকেও তোপ দাগেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গেরুয়া শিবিরের নেতানেত্রীদের কুকথা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “কিছু কিছু বিজেপি নেতা যে কোন ভাষায় কথা বলেন তা আমি মুখেও আনতে পারব না। রাজনীতির বিরুদ্ধে রাজনৈতিক প্রতিশোধ না নিয়ে ভয় দেখানো হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ওরা যা দেখাচ্ছে মনে রাখবেন তা ঠিক নয়। যত নির্বাচন এগিয়ে আসবে, তত এগুলো ওরা করবেই।”

কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা ইস্যুতে কেন্দ্রের সমালোচনা করার পাশাপাশি স্কুলের পরীক্ষা নিয়েও এদিন মোদী সরকারকে তুলোধনা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে স্কুলে এই মুহূর্তে সব পরীক্ষা স্থগিত থাকছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ” স্কুল নিয়েও ফরমান দেয় দিল্লি। স্কুল আমাদের হাতে থাকায় সেটা করতে পারেনি। স্কুলে কোনও পরীক্ষা হবে না।”

 

Related Articles

Back to top button
Close