fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

হিন্দুদের স্বার্থেই রাষ্ট্রবাদী সরকার চাই, বলছে ভিএইচপি

রক্তিম দাশ, কলকাতা: হিন্দুদের স্বার্থেই একুশে বাংলায় রাষ্ট্রবাদী সরকার চাই। এমনটাই মত বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (ভিএইচপি)-র। সংগঠনের কেন্দ্রীয় সম্পাদক ডা. সুরেন্দ্র জৈন সোমবার ‘যুগশঙ্খ’কে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘বাংলার মানুষের কাছে আমাদের আবেদন, এবার বিধানসভায় আপনারা রাষ্ট্রবাদী সরকারকে বেছে নিন, যে সরকার কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বাংলাকে বিকাশের পথে নিয়ে যাবে।’

 

সুরেন্দ্র এদিন অভিযোগের সুরে বলেন, ‘মমতাদিদির শাসনে যদি কেউ দুঃখী থাকনে, তা হিন্দুরা। তাঁরা খুশি নন। কারণ বাংলায় এখন জেহাদিদের সরকার চলছে। বাংলাদেশি, রোহিঙ্গা আর স্থানীয় কট্টরপন্থীরা এই শাসনের সুযোগ নিচ্ছে।’ তাঁর আক্ষেপ, ‘সংবিধানে বলা হয়েছে, সরকার ফর দ্য পিপল, অব দ্য পিপল, বাই দ্য পিপল। কিন্তু বাংলায় এখন বাস্তবে সরকার ফর দ্য জেহাদি, বাই দ্য জেহাদি।’ সুরেন্দ্রর দাবি, ‘এই শাসন ব্যবস্থা বদলাতেই হবে বাংলার মানুষকে। না হলে যে ধরনের অরাজকতা চলছে, তা আরও বেড়ে যাবে। এটা বুঝতে পেরে দিদির সঙ্গীরাও এখন ওঁকে ছেড়ে চলে যাচ্ছেন। আমরা চাই, এমন এক সরকার বাংলায় আসুক, যারা হিন্দু সমাজের ভাবনাকে গুরুত্ব দেবে, বিনাশের রাস্তা ছেড়ে বাংলাকে বিকাশের রাস্তায় নিয়ে যাবে।’

 

বঙ্গবাসীর উদ্দেশে তাঁর আহবান, ‘সোনার বাংলা বানান, বরবাদের বাংলা বানাচ্ছেন।’ সুরেন্দ্র জৈন এদিন পরিষ্কার বলেন, ‘বাংলার এই পরিস্থিতিতে আমরা বিজেপিকে সমর্থন করছি। বাম পন্থীদের সমর্থন আমরা করতে পারি না। তাঁদের ইতিহাস সবাই জানেন। বাংলাকে তাঁরা বরবাদ করে দিয়েছিলেন ৩৪ বছরে। যতটুকু বেঁচেছিল, তা তৃণমূল বরবাদ করে দিয়েছে।’ বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সম্পাদক আশাবাদী, ‘বিজেপিই পারবে বাংলার হৃতগৌরব ফিরিয়ে আনতে। তাই একুশের নির্বাচনে বিজেপিরই বাংলার ক্ষমতায় আশা উচিত। রাষ্ট্রবাদী সরকার এলেই বাংলা আবার বিকাশের রাস্তায় ফিরে আসবে।’ তিনি মনে করিয়ে দেব, ‘ভিএইচপি একটি সামাজিক সংগঠন। আমরা কোনও রাজনৈতিক দলের শাখা নই। আমাদের কার্যকর্তাদের আমরা কোনও নির্দেশ বা ফরমান দিই না। তাঁরা তাদের বিবেক থেকে ভোট দেবেন এবং বাংলায় রাষ্ট্রবাদী সরকারকেই আনবেন। রাষ্ট্রঘাতী সরকারকে কখনওই বাংলায় আনবেন না।’

 

এদিকে, একুশের বিধানসভা ভোটের আফে ফের হিন্দুত্বের ঝড় উঠতে চলেছে বাংলাজুড়ে। অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মানের জন্য বাংলাজুড়ে অর্থ সংগ্রহ অভিযানে নামছেন পশ্চিমবঙ্গের ভিএইচপি কর্মকর্তারা। ‘নিধি সংগ্রহ মহাভিযান যোজনা’ নামক এই কর্মসূচিকে বাংলার সর্বস্তরে নিযে যাওয়ার জন্য ইতিমধ্যেই কলকাতায় বৈঠক করে গিয়েছেন। ভিএইচপির-র সর্বভারতীয় সংগঠন সম্পাদক বিনায়ক রাও দেশপান্ডে। ভিএইচপি সূত্রে খবর, আগামী বছর ১৫ জানুয়ারি মকর সংক্রান্তির দিন শুরু হবে অভিযান। চলবে ২৭ ফেব্রুয়ারি, মাঘ পূর্ণিমার দিন পর্যন্ত। যদিও বাংলার এই অভিযান ১৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যেই শেষ করার টার্গেট নিয়েছেন এ রাজ্যের কর্মকর্তারা। বিধানসভা নির্বাচনের আগে ফের রামমন্দির নিয়ে ভিএইচপি-র এ ধরনের কর্মসূচিকে নিঃসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তাঁদের মতে, বিধানসভা ভোটের আগে বাংলার রাজনীতিতে মেরুকরণের হাওয়া জোরদার হলে আখেরে বাড়তি সুবিধা পাবে বিজেপিই।

 

 

 

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close