fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

‘২০০১ সালে আমাদের সংসদে কাপুরুষোচিত আক্রমণ আমরা কোনও দিনও ভুলব না’

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ২০০১ সালের ১৩ ডিসেম্বর্র…এই দিনটির সেই ভয়ঙ্কর স্মৃতি কোনও দিনও ভুলবেন না ভারতবাসী। সেই হামলা ভারতীয়দের মনে আঘাত করেছিল। সংসদ হামলার ১৯ বছর পর আরও একবার সেই কথাই মনে করিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০১ সালে আমাদের সংসদে কাপুরুষোচিত আক্রমণ আমরা কোনও দিনও ভুলব না। সংসদ রক্ষয়া যেসব বীর প্রাণ দিয়েছিলল তাদের বীরত্ব আর ত্যাগের কথা কথা স্মরণ করে নরেন্দ্র মোদি তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

 

এদিন তিনি আরও বলেছেন গোটা দেশ সর্বদা সেইসব বীরদের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকবে। প্রসঙ্গত, ১৯ বছর আগে লোকসভা অধিবেশন চলাকালীন লস্কর-ই-তইবা ও জইশ-ই-মহম্মদের পাঁচ আত্মঘাতী জঙ্গি সংসদে অনুপ্রবেশ করে ও হামলা চালায়। প্রথম দিকে তারা একতরফা হামলা চালায়। পরবর্তী সময় জঙ্গি হামলা প্রতিহত করে দিল্লি পুলিশ ও সিআরপিএফ জওয়ানরা। আর জঙ্গিদের সঙ্গে লড়াই করতে গিয়ে দিল্লি পুলিশের পাঁচ কর্মী, সিআরপিএফএর এক মহিলা কনস্টেবল ও সংসদের ওয়াচ ও ওয়ার্ড বিভাগের দুই নিরাপত্তা রক্ষী প্রাণ হারিয়েছিলেন। ১৩ ডিসেম্বর সংসদ হামলায় পাঁচ জঙ্গি নিহত হয় ভারতীয় নিরাপত্তা রক্ষীদের হাতে। সংসদের এক মালি ও চিত্র সাংবাদিকও জঙ্গিদের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছিলেন।

 

এদিকে এই হামলার মাস্টার মাইন্ড হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল আফজল গুরু, শওকত হুসেন, আফসান গুরু ও এসআর গিলানিকে। কয়েক দিনের মধ্যেই চারজনকে গ্রেফতার করা হয়। তারপর তাদের বিরুদ্ধে একবছর ধরে চলে মামলা। একজনকে ফাঁসিকাঠে ঝোলান হয়েছিল। আজ থেকে ঠিক ১৯ বছর আগে ভারতীয় সংসদে হামলা চালায় পাক মদতপুষ্ট জঙ্গিরা। আর যার জেরে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল গোটা দেশ।

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ টুইট করে জানিয়েছেন, ২০০১ সালে লোকতন্ত্রের মন্দির সংসদ ভবনে হামলায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারকারী ভারতের বীর সন্তানদের প্রতি কোটি কোটি সেলাম। দেশ চিরকাল এই অমর আত্মত্যাগের কাছে ঋণী থাকবে।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close