শিক্ষা-কর্মজীবন

নতুন শিক্ষা বর্ষে ৬৫ দিন ছুটি পাবে পড়ুয়ারা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মধ্যশিক্ষা পর্ষদের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী নতুন শিক্ষাবর্ষে সর্বমোট ৬৫ দিন ছুটি পাবে পড়ুয়ারা। তিনটি পর্বে মূলত এই ছুটির তালিকার বিন্যাস করা হয়েছে। প্রথম পর্বে জানুয়ারি থেকে এপ্রিল মাস পর্যন্ত, দ্বিতীয় পর্বে মে থেকে আগস্ট মাস এবং সব শেষে তৃতীয় পর্বে সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ছুটির তালিকা প্রকাশ করে পর্ষদ। মোট ছুটি ৬৩ দিনের ঘোষণা করা হলেও স্কুল কর্তৃপক্ষের হাতে রয়েছে দুটি ছুটি৷ সবমিলিয়ে চলতি বছরে ৬৫ দিন ছুটি পাবেন পড়ুয়ারা।

বিজ্ঞপ্তিতে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, কবি ভানুভক্ত জন্মদিন ১৩ জুলাই ছুটি৷ কেবলমাত্র দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি জেলার জন্য দিনটি পালনীয়৷ একই সঙ্গে সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণের জন্মদিন, শিক্ষক দিবস ৫ সেপ্টেম্বর পালনীয়। ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার পন্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের জন্মদিন পালনীয়৷ বিদ্যালয়ে পালনীয় দিনগুলিতে সমস্ত শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীদের উপস্থিতি ক্ষেত্রে কলকাতা গেজেট নোটিফিকেশনের অন্তর্গত ৪ নম্বর রুল প্রযোজ্য হবে বলে জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

ইংরেজি নববর্ষ বুধবার দিয়ে শুরু হল ছুটি৷ এরপর স্বামী বিবেকানন্দের জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে ১২ জানুয়ারি রবিবার ছুটি৷ নেতাজি সুভাষচন্দ্র জয়ন্তী উপলক্ষে ২৩ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার ছুটি হলেও বিদ্যালয়ে তা পালনীয়৷ সাধারণতন্ত্র দিবস ২৬ জানুয়ারি রবিবার হলেও বিদ্যালয়ে তা পালন করতে হবে৷ এরপর রয়েছে সরস্বতী পুজো৷ ৩০ ও ৩১ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে৷ এরপর ২১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার শিবরাত্রির ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ তারপর রয়েছে ৯ মার্চ সোমবার দোলযাত্রার ছুটি৷ এরপর দিন ১০ মার্চ মঙ্গলবার হোলি উপলক্ষে ছুটি দেওয়া হয়েছে। শবেবরাত উপলক্ষে ৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার ছুটি৷ গুড ফ্রাইডে উপলক্ষে ১০ এপ্রিল শুক্রবার ছুটি৷ ১৪ এপ্রিল মঙ্গলবার বাংলা নববর্ষ ও বি আর আম্বেদকরের জন্মদিন উপলক্ষে একদিনের ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে৷

এরপর দ্বিতীয় পর্বে মে থেকে আগস্ট পর্যন্ত ছুটির ঘোষণা করেছে পর্ষদ৷ দ্বিতীয় পর্বের প্রথম ছুটি শ্রমিক দিবসে পয়লা মে শুক্রবার ছুটি৷ ৭ মে বুদ্ধপূর্ণিমার ছুটি৷ রবীন্দ্রজয়ন্তী ৮ মে শুক্রবার ছুটি৷ এরপর শুরু হচ্ছে গরমের ছুটি৷ গ্রীষ্মাবকাশ পড়ছে ২৩ মে থেকে ২৭ জুন পর্যন্ত৷ এরপর ইদ-উল-ফিতর উপলক্ষে ২৬-২৭ মোট দু’দিন ছুটি দেওয়া হয়েছে। যদিও সেটা গরমের ছুটির মধ্যেই পড়ছে। এরপর ২৩ জুন রথযাত্রা ছুটি৷ ইদুজ্জোহা উপলক্ষে পয়লা আগস্ট শনিবার ছুটি। জন্মাষ্টমী উপলক্ষে ১১ আগস্ট মঙ্গলবার ছুটি৷ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ১৫ আগস্ট শনিবার ছুটি৷ যদিও তা বিদ্যালয়ে পালনীয়৷ এরপর রবিবার পড়ে যাওয়ায় ৩০ আগস্ট মহরমের ছুটি৷

এরপর তৃতীয় পর্বে রয়েছে ৩৩ দিনের ছুটি৷ ১৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার মহালয়ার ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে৷ এরপর ২ অক্টোবর গান্ধী জয়ন্তী উপলক্ষে শুক্রবার ছুটি৷ এর পরপর লম্বা পুজোর ছুটি পড়ে যাচ্ছে৷ পুজোর ছুটি বাবদ ১৯ অক্টোবর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত টানা ২৬ দিনের ছুটি রয়েছে৷ এরপর ছট পুজো উপলক্ষে ১৯ নভেম্বর থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত দু’দিনের ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ ফতেয়া দোয়াজ দাহাম উপলক্ষে ২৭ নভেম্বর শুক্রবার ছুটি৷ গুরু নানকের জন্মদিন উপলক্ষে ৩০ নভেম্বর সোমবার ছুটি৷ বড়দিন উপলক্ষে ২৫ ডিসেম্বর একদিনের ছুটি৷

sweta

Back to top button
Close