fbpx
একনজরে আজকের যুগশঙ্খকলকাতাহেডলাইন

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিজেপি প্রার্থীর মৃত্যু, খুনের অভিযোগ করছেন স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি: একুশের বিধানসভা নির্বাচনের এক বিজেপি প্রার্থীর মৃত্যু হল। এই ঘটনায় খুনের অভিযোগ করছেন মৃতের স্ত্রী। বুধবার সকালে মগরাহাট পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী মানস সাহার মৃত্যু হয়েছে। এদিন সকাল ১১টা নাগাদ ঠাকুরপুকুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। গত শনিবার থেকে পেটের কিছু সমস্যা নিয়ে ওই  হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এই মৃত্যুকে স্বাভাবিক বলে মেনে নিতে পারছেন না তাঁর স্ত্রী। এই ঘটনায় পরিকল্পিতভাবে খুনের অভিযোগ করে সিবিআই তদন্তের দাবি করেছেন তিনি।

ভোটের ফলপ্রকাশের দিন অর্থাৎ ২ মে ভোটগণনা কেন্দ্রের বাইরে মানসবাবুকে বেধড়ক মারধর করে দুষ্কৃতীরা। মাথায় গুরুতর আঘাত লাগে তাঁর। এরপর একমাস একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। তাঁর মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। পরবর্তীকালে সেভাবে চলাফেরা করতে পারছিলেন না। সব সময় তিনি বাড়িতেই থাকছিলেন।

পরিবার সূত্রে খবর, শনিবার রাতে হঠাৎ তাঁর পেট ব্যথা শুরু হওয়ায় তাঁকে ঠাকুরপুকুরের ওই বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতাল সূত্রে বলা হয় তাঁর পেটে গ্যাসের আধিক্য ঘটেছে। সঙ্গে শরীরে সোডিয়ামের মাত্রাও কমে গিয়েছিল বলে জানানো হয়। যদিও মঙ্গলবার রাতে তিনি সুস্থ হয়ে গিয়েছেন বলে জানানো হয় হাসপাতালের তরফে। এমনটাই জানিয়েছেন বিজেপি নেতার স্ত্রী প্রীতি সাহা। সেই সঙ্গে তিনি বলেন,” আমার স্বামী সুস্থ হয়ে গিয়েছে বলা হয়েছিল। বুধবার তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। কিন্তু বুধবার সকালে বলা হচ্ছে তাঁর অবস্থার অবনতি হওয়ায় আইসিউতে দেওয়া হয়েছে। এরপরই তাঁর মৃত্যু হয়।” এই ঘটনায় পরিকল্পিত খুনের অভিযোগ করেছেন প্রীতিদেবী।  তাঁর কথায়, ওই একমাসে নিউরো সায়েন্সেস হাসপাতালে কিছু করতে পারেনি ওরা। ঠাকুরপুকুর হাসপাতালে পরিকল্পিতভাবে আমার স্বামীকে খুন করা হয়েছে। তৃণমূলের দিকেও অভিযোগের আঙুল তুলে সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন তিনি। এদিন মৃত বিজেপি প্রার্থীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর মারধরের ঘটনায় তাঁরা ই-মেল করে অভিযোগ করেছিলেন বলে দাবি করেছেন মৃতের স্ত্রী। এবার মানসবাবুর মৃত্যু নিয়ে পুলিশে অভিযোগ করতে চলেছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button
Close