fbpx
একনজরে আজকের যুগশঙ্খপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সিপিএমের সঙ্গে আঁতাঁত করলে হেরে যাবেন’, সামশেরগঞ্জের প্রচারে অভিষেকের নিশানায় অধীর

নিজস্ব প্রতিনিধি: বৃহস্পতিবার মুর্শিদাবাদের দুটি বিধানসভা কেন্দ্রের ভোট প্রচারে গিয়ে বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদ তথা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীকে নিশানা করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের কটাক্ষ, সিপিএমের সঙ্গে জোট বেঁধে কংগ্রেস জিততে পারবে না।

আগামী বৃহস্পতিবার সামশেরগঞ্জ ও জঙ্গিপুরে বিধানসভা ভোট। এই দুই কেন্দ্রের প্রার্থীদের মৃত্যুতে গত মার্চ-এপ্রিলে রাজ্যের বাকি বিধানসভা আসনগুলির সঙ্গে নির্বাচন হতে পারেনি। তাই নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে ৩০ সেপ্টেম্বর এই দুই আসনে ভোট হবে। এদিন  সামশেরগঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী আমিনুল ইসলামের হয়ে প্রচারের শুরুতেই অভিষেক নাম না করে অধীর চৌধুরীকে বিঁধে বলেন, ”সিপিএমের সঙ্গে গোপন আঁতাত করেছেন আপনারা, হেরে যাবেন। মুর্শিদাবাদে কংগ্রেস হারবে আর তৃণমূল হারাবে।” সেইসঙ্গে সাধারণ মানুষের উদ্দেশে তিনি বলেন,

“বহরমপুরের সাংসদকে তো ভোটে নির্বাচিত করেছেন। তারপর থেকে তাঁকে কাছে পেয়েছেন? তৃণমূলকে জেতালে অনেক কাজ পেতেন। এই জেলায় কুড়িটি আসনে জিতেছে তৃণমূল। বাকি দুটিটিতেও জিততে হবে। আপনারা আমাদের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে জেতান।”

সেইসঙ্গে বিজেপিকে আক্রমণ করে অভিষেক বলেন, ”রাজনৈতিক লড়াইয়ে আমাদের সঙ্গে পেরে ওঠে না। তখন এজেন্সি লেলিয়ে দেয় আমাদের ভয় দেখাতে। কিন্তু কোনও ভয় দেখিয়ে, ধমকে-চমকে আমাদের মাথা নত করা যাবে না। বরং আমরা আরও মাথা উঁচু করে দাঁড়াব। আর বিজেপির অনেকে আমাদের দলে আসার জন্য পা বাড়িয়ে আছেন। বলেছিলাম, ভোটের পর খেলা শুরু হবে। আমরা দরজা খুলে দিলে বিজেপি দলটাই উঠে যাবে।” অভিষেক আরও বলেন, ”বহিরাগতদের বাংলায় কোনও স্থান নেই। আগামী তিন বছরের মধ্যে বহিরাগতদের উৎখাত করবই।” উল্লেখ্য ত্রিপুরায় অভিষেক মিছিল করতে গিয়ে বাধা পেয়েছেন বিপ্লব দেব প্রশাসনের কাছে। এদিন সেই প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ”ত্রিপুরায় পুলিশ দিয়ে ভয় দেখাচ্ছে, কর্মসূচিতে বাধা দিচ্ছে। তবে এসব করে কোনও লাভ নেই। ত্রিপুরায় জিতব আমরাই। একমাত্র  তৃণমূলই পারে বিজেপিকে হঠাতে।”

 

Related Articles

Back to top button
Close