fbpx
কলকাতাহেডলাইন

চালু হয়ে গেল মদের হোম ডেলিভারি, ১২টা- ৭টা খোলা দোকান, নির্দেশিকা জারি রাজ্যের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সুরাপ্রেমীদের অপেক্ষার অবসান। সোমবার সকাল থেকে শর্তসাপেক্ষে দেশের বিভিন্নপ্রান্তের মদের দোকান খুলেছে। ফলে ভোর থেকে লম্বা লাইন পড়েছিল সেই দোকানগুলির সামনে। সেই ভিড়ে সামাজিক দূরত্বকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখানো হয়েছে। কোথাও কোথাও তো আবার ভিড় সামাল দিতে পুলিশকে লাঠিও চালাতে হয়েছে। বন্ধ করে দিতে হয়েছে দোকান। সবমিলিয়ে তৃতীয়দফা লকডাউনের শুরুর দিনই দেশের বিভিন্নপ্রান্তে সামাজিক দূরত্বের বিধিনিষেধ শিকেয় উঠেছে। কলকাতার কালীঘাট অঞ্চলে ভিড় সামাল দিতে গিয়ে পুলিশকে লাঠিচার্জ করতে হয়।

এই লাইনে দাঁড়ানোর সমস্যা সমাধান করল রাজ্য। শুরু হয়ে গেল মদের হোম ডেলিভারি। ফলে আর দোকানে গিয়ে নয়, এবার ফোন কিংবা অ্যাপের মাধ্যমে অর্ডার দিলেই মদ পৌঁছে যাবে আপনার বাড়ির দোরগোড়ায়। সোমবার দুপুরেই এই সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। কিন্তু হোম ডেলিভারি চালু হলেও ২ বোতলের বেশি মদ একসঙ্গে বিক্রি করার উপর আপাতত নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। শুধু কলকাতাই নয়, সারা রাজ্যেই এই নিয়ম লাগু হয়ে গেল আজ বিকেল থেকেই।

সেই নির্দেশিকা অক্ষরে অক্ষরে মেনে তবেই মিলবে মদ। সংক্রামক এলাকায়  কোনওভাবেই দোকান খোলা যাবে না বলে কড়া নির্দেশ প্রশাসনের। মদের দোকান খোলা, মদ কেনাবেচা নিয়ে রাজ্যবাসীর অপেক্ষার অন্ত ছিল না। এই ভিড় সামাল দিতে হিমশিম দশা পুলিসের। রাজ্যেও সেই একই সমস্যা দেখা গিয়েছে। মদের দোকান খোলা নিয়ে রাজ্যের তরফে কোনও নির্দেশিকা না আসায় কিছুটা বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছিল। অনেকেই বুঝতে পারছিলেন না, কোথায় দোকান খোলা যাবে, কোথায় খোলা যাবে না। ক্রেতা-বিক্রেতাদের পাশাপাশি পুলিশও খানিক সংশয়ে ছিল। সেই কারণে সকাল থেকে বেশ কিছু জায়গা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এই মদ কেনাকে কেন্দ্র করে।

আরও পড়ুন: রাজ্য ‘চূড়ান্ত ব্যর্থ’ নজরদারি দুর্বল, কড়া চিঠি কেন্দ্রীয় দলের

সোমবার বিকেলে, বৈঠকের পর সেই নির্দেশিকা জারি করল রাজ্যের আবগারি, শপিং মল, মার্কেট কমপ্লেক্স অথবা ক্লাবের মধ্যে থাকা মদের দোকান বন্ধই থাকবে। সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনের অনুমোদন সাপেক্ষে খুলতে হবে দোকান। মদের দোকানে রাখতে হবে স্যানিটাইজার, মাস্ক ছাড়া মদ মিলবে না। এক সময়ে ৫ জনের বেশি লাইনে দাঁড়াতে পারবেন না, প্রত্যেকের মধ্যে ন্যূনতম ৬ ফুট দূরত্ব রাখতে হবে। একইসঙ্গে জানানো হয়েছে এবার থেকে কনটেন্টমেন্ট এলাকা ছাড়া দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত মদের দোকান খোলা রাখা যাবে।

Related Articles

Back to top button
Close