fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে নিজের বিয়ে নিজেই রুখে দিল নাবালিকা

শ‍্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: সুন্দরবনে নিজের বিয়ে নিজেই রুখে দৃষ্টান্ত গড়ল নাবালিকা ছাত্রী। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বসিরহাট মহাকুমার হাসনাবাদ থানার বরুনহাট গ্রামের ঘটনা। বছর ১৪ এর নবম শ্রেণির ছাত্রীর সঙ্গে বিয়ের ঠিক হয়েছিল প্রতিবেশী সর্দার পাড়ার যুবক সেলিম মোল্লার। সেলিম পেশায় শ্রমিকের কাজ করে।

ঘটনাটি ঘটে রবিবার দুপুর বেলা। বিয়ের সবকিছু আয়োজন প্রস্তুত। বাড়িতে আত্মীয়রা ভিড় করেছে, প্যান্ডেল থেকে মেয়ের মেহেন্দি শেষ হয়েছে। কিন্তু এই  বিয়েতে স্বয়ং ছাত্রী নিজেই রাজি নন। সে পড়াশোনা করতে চায়, তাই প্রথমে হাসনাবাদ থানার পুলিশ প্রশাসনের কাছে জানায়। তারপর টোল ফ্রি ১০০ নম্বর ডায়াল করে চাইল্ড লাইনে বিস্তারিত জানায় সে। এই ঘটনা জানার পরে হাসনাবাদের  বিডিও মুস্তাক আহমেদ  হাসনাবাদ থানার পুলিশ আধিকারিক মকবুল গাজীর নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় প্রশাসনের একটি দল।

আরও পড়ুন- ভাঙড়ে শুভেন্দু অধিকারীর পোষ্টার ঘিরে গুঞ্জন

তারা গিয়ে এই বিয়ে বন্ধ করে দেয়। মেয়ের বাবা জিয়াদ মোল্লা কাছ থেকে মুচলেকা নেন। প্রশাসনের আধিকারিকরা তাকে পড়াশোনার সবরকম ব্যবস্থা করে দেওয়ার কথা বলেন। ছাত্রীর এই সাহসিকতার পরিচয় দেখে বরুনহাট হাইস্কুলের অন্যান্য সহকর্মীরা তাকে দুহাত ভরে বাহবা দেয়। আগামী দিনে সুন্দরবনে বাল্যবিবাহ রোধে এই ছাত্রীর ভূমিকা যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে তা বলা বাহুল্য।

 

Related Articles

Back to top button
Close