fbpx
একনজরে আজকের যুগশঙ্খকলকাতাদেশহেডলাইন

রাজ্যসভার মনোনয়ন দিয়েই ত্রিপুরা দখলের হুঙ্কার শিলচরের প্রাক্তন সাংসদ সুস্মিতা দেবের

নিজস্ব প্রতিনিধি:  তাঁর পাখির চোখ ত্রিপুরায় তৃণমূলকে ক্ষমতায় নিয়ে আসতে সাহায্য করা। সোমবার রাজ্যসভার সাংসদ পদের নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর এমনটাই জানালেন শিলচরের প্রাক্তন সাংসদ সুস্মিতা দেব। এদিন পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় মনোনয়ন দিলেন সুস্মিতা দেব। সঙ্গে ছিলেন তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায়।
আর তৃণমূলের পক্ষে রাজ্যসভায় মনোনয়ন দিয়েই ত্রিপুরা দখলের হুঙ্কার দিলেন সুস্মিতা। এদিন সকালেই টুইট করে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী জানিয়ে দেন, পশ্চিমবঙ্গের উপনির্বাচনে প্রার্থী দেবে না বিজেপি। তাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সুস্মিতা  মানস ভুঁইয়ার ছেড়ে যাওয়া আসনে সাংসদ হতে চলেছেন। তবে সুস্মিতাকে মনোনয়ন প্রত্যাহার ও স্ক্রুটিনির দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।
এদিন শিলচরের প্রাক্তন সাংসদ বলেন, ‘‘আপাতত সামনে রয়েছে ত্রিপুরার ২০২৩ সালের বিধানসভা ভোট। তাই ত্রিপুরার নির্বাচনই আমাদের প্রথম টার্গেট।’’ মঙ্গলবার তিনি ত্রিপুরায় যাবেন। সেখানে ২২ সেপ্টেম্বর তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে একটি মিছিলের কর্মসূচি রয়েছে। কিন্তু ত্রিপুরা পুলিশ অনুমতি না দেওয়ায়, আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে তৃণমূল। তবে তৃণমূল সেখানে বিজেপিকে জমি ছাড়তে নারাজ, সেটা এদিন ফের স্পষ্ট করেছেন সুস্মিতা। তিনি বলেন, ‘‘মমতাদির প্রতি আস্থা ও ভরসা রয়েছে ত্রিপুরাবাসীর। তবে আমার রাজ্যসভায় মনোনয়নের পরে সেই বিষয়টি আরও উজ্জীবিত হয়েছে। এটা ত্রিপুরার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত। আমরা ত্রিপুরার যুদ্ধের জন্য তৈরি।’’

Related Articles

Back to top button
Close