fbpx
কলকাতাহেডলাইন

বিনা অনুমতিতে ভিডিও চ্যাট অ্যাপে ছবি ব্যবহার, কলকাতা পুলিশের দ্বারস্থ নুসরত জাহান

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: সেলিব্রিটিরা যেমন খুব সহজে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে যান, তেমনই তাদের ছবি-ভিডিও নিয়ে ব্যক্তিগত স্বার্থ নিরসন বা অপচেষ্টাও অভিযোগ ওঠে। ঠিক তেমনটাই ঘটেছে তৃণমূল সাংসদ তথা জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরত জাহানের। এক সময়ে টিকটক অ্যাপে থাকলেও এখন আর কোথাও কোনও অ্যাপে নেই তিনি। তা সত্ত্বেও তার অনুমতি ছাড়াই  ছবি ব্যবহার করা হচ্ছে এক ভিডিও চ্যাট অ্যাপে। বিষয়টি নিয়ে ট্যুইট করে সকলকে জানিয়ে কলকাতা পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন অভিনেত্রী সাংসদ।

প্রসঙ্গত, ভারতে টিকটক অ্যাপ ব্যান হয়ে যাওয়ার পরও খুলে গিয়েছে একাধিক ভিডিও অ্যাপ। অনেক টিকটক স্টারদের না জানা সত্ত্বেও বিভিন্ন অ্যাপে ছবি ও পুরনো ভিডিও ব্যবহার হয়। এমনই ভাবে ফ্যান্সি ইউ- ভিডিও চ্যাট নামে একটি অ্যাপের বিজ্ঞাপনে নিজেরই লাল পোশাক পরা ছবি নজরে আসে অভিনেত্রী নুসরত জাহানের। পাশে অবশ্য আরও একটি মেয়ের ছবিও রয়েছে। সাংসদের দাবি, তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না।
কিন্তু সাংসদের ছবি একটি ভিডিও চ্যাট অ্যাপের বিজ্ঞাপনীতে তাঁর অনুমতি ছাড়া কীভাবে ব্যবহার করতে পারে? সে খবর নুসরত জাহনের নজরে আসতেই কলকাতা পুলিশের সাইবার সেলকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পদক্ষেপ করার আর্জি জানান সাংসদ-অভিনেত্রী। টুইট করে নুসরত বলেন, “এই ধরনের কাজ কোনও ভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। আমার অনুমতি ছাড়া আমার ছবি ব্যবহার করা হচ্ছে। কলকাতা পুলিশের সাইবার সেল বিভাগকে আরজি জানাচ্ছি, দয়া করে তাঁরা যেন সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পদক্ষেপ করেন। প্রয়োজনে আইনি ব্যবস্থা নিতেও প্রস্তুত আমি।”
অভিনেত্রীর আবেদন পেয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন লালবাজারের গোয়েন্দারা।

Related Articles

Back to top button
Close