fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

পরকীয়ার অভিযোগ, স্বামীকে কাঁধে নিয়ে ঘুরলেন স্ত্রী!

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: পরকীয়ার অভিযোগে স্বামীকে কাঁধে নিয়ে পুরো গ্রাম ঘুরতে বাধ্য করা হল এক মহিলাকে।ওই মহিলার স্বামীর অভিযোগ ছিল যে, স্ত্রী পর পুরুষে আসক্ত। এর বিচার চাইতে মহিলার স্বামী সালিশি সভার দ্বারস্থ হয়। সেই সালিশি সভাতেই মহিলাকে বলা হয় স্বামীকে কাঁধে নিয়ে পুরো গ্রাম ঘুরতে হবে। সেই মত ওই মহিলাকে তাঁর স্বামীকে কাঁধে নিয়ে পুরো গ্রাম প্রদক্ষীন করে। আর পুরো ঘটনা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখে গ্রামবাসীরা। কয়েক মিনিটের এই ভিডিও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ওই ভিডিও দেখলে মনে হবে যে, অসুস্থ স্বামীকে কাঁধে তুলে নিয়ে যাচ্ছেন স্ত্রী। কিন্তু আদতে তা নয়। ভিডিওটি ভালোভাবে দেখলে বোঝা যাবে যে, স্বামীকে কাঁধে চাপিয়ে নিয়ে যেতে যথেষ্ট কষ্ট হচ্ছে ওই মহিলার। তিনি কোনওমতে পা টেনে টেনে হাঁটছেন। কিন্তু থামলেই গালিগালাজ ভেসে আসছে পাশ থেকে। মারা হচ্ছে কাঠের কঞ্চি দিয়ে।

[আরও পড়ুন- মহিলার গোপনাঙ্গ থেকে সোয়াব সংগ্রহ, গ্রেফতার ল্যাব টেকনিশিয়ান]

এই ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি পুলিশের নজরে আসে। মধ্যপ্রদেশের  ঝাবুয়া কোতয়ালি থানার অন্তর্গত ছাপড়ি রনওয়াস গ্রাম থেকে ওই মহিলার স্বামী সহ  সাত জনকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনায় পুলিশ জানিয়েছে যে, ওই মহিলা তিন সন্তানের মা। গুজরাটে দিনমজুরির কাজ করতে গিয়েছিলেন ওই দম্পতি। সেখানেই অন্য এক মজুরের সঙ্গে স্ত্রীর পরকীয়া সম্পর্ক নিয়ে অভিযোগ তোলেন মহিলার স্বামী।  এরপরেই নিজের গ্রামে ফিরে এসে সালিশি সভা ডাকে সে। আরসেই সালিশি সভাতেই সামীকে কাঁধে চাপিয়ে ঘোরানোর নিদান দেওয়া হয়। জানা গিয়েছে যে, মধ্যপ্রদেশের ঝাবুয়া, আলিরাজপুর, ধর জেলাগুলিতে মহিলাদের উপর এখনও পাশবিক অত্যাচার করা হয়।  মহিলারা পারিবারিক ও গ্রামীণ অত্যাচারের শিকার হন।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close