fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ভিনরাজ্যে আটকে পড়েছেন, বাড়ি ফিরতে যোগাযোগ করুন টোল ফ্রি নম্বরে

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনে জেরে সারা দেশের বিভিন্ন জায়গায় রাজ্যের বহু মানুষই আটকে রয়েছেন। ভিন রাজ্যে আটকে পড়াদের বাড়ি ফিরতে যোগাযোগ করতে হবে নিজেদের রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে। এমনটাই কেন্দ্রীয় নির্দেশ। বাংলার প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য তাই রাজ্য সরকার চালু করল একটি টোল ফ্রি নম্বর। ওই নম্বরে ফোন করে রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন পরিযায়ী শ্রমিক-সহ ভিন রাজ্যে আটকে পড়া পুণ্যার্থী, পর্যটক এবং পড়ুয়ারা। শুধু তাই নয়, এ বিষয়টি দেখার জন্য এক জন নোডাল অফিসারও নিয়োগ করেছে রাজ্য। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য নোডাল অফিসার হিসেবে পিবি সেলিমকে নিয়োগ করা হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের আধিকারিক পি বি সেলিমকে এই সংক্রান্ত নোডাল অফিসার হিসেবে নিয়োগ করা হল। রাজ্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই আধিকারিকের নম্বর দিয়ে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। ভিনরাজ্যে কেউ আটকে থাকলে তিনি এই নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন, তাতে যদি রাজ্যে ফিরিয়ে আনা যায় তা হলে সেটাই করা হবে। একান্ত তা না করা গেলে রাজ্যের পক্ষ থেকে সবরকম সহযোগিতা করা হবে। সেলিমের ফোন নম্বর, হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর, মেল আইডি সবই দেওয়া আছে। ফলে যে কোনওভাবেই তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা যেতে পারে। তাহলে এই পরিস্থিতিতে বাকি সব ব্যবস্থা করা হবে প্রশাসনের তরফ থেকে।

ভিন্ রাজ্যে আটকে পড়াদের বাড়ি ফেরাতে প্রথমে বাসের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছিল কেন্দ্র। কিন্তু তাতে বেঁকে বসেন পশ্চিমবঙ্গ-সহ বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যসচিবরা। বাসের পাশাপাশি বিশেষ ট্রেন চালানোর দাবি তোলেন তাঁরা। সেই দাবি মেনে নিয়ে শুক্রবার নতুন নির্দেশিকা জারি করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। তাতে রেল মন্ত্রককে বিশেষ ট্রেন চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়। এ ব্যাপারে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির সঙ্গে সমন্বয় গড়ে তুলতে নোডাল অফিসার নিয়োগ করতে বলা হল রেলকে।

আরও পড়ুন: ৫৭২ আর ৯৩১-এর তফাত নিয়ে খোঁচা! তথ্য লুকনো ছাড়ুক মমতার সরকার! কটাক্ষ রাজ্যপালের

রেল এই ঘরে ফেরার ব্যাপারে আটকে পড়াদের রাজ্যের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা বলেছে। শনিবার একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পূর্ব এবং দক্ষিণ-পূর্ব রেলের তরফে ভিন্ রাজ্যে আটকে পড়া মানুষদের রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গেই যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। ওই বিবৃতিতে স্পষ্ট বলে দেওয়া হয়েছে, আগামী ১৭ মে পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ। কিন্তু অবস্থার প্রেক্ষিতে পরিযায়ী শ্রমিক, পুণ্যার্থী, পর্যটক, পড়ুয়া ও অন্যদের নিজ নিজ রাজ্যে ফেরাতে বিশেষ ট্রেন চালানো হতে পারে। তবে তা রাজ্য সরকারগুলির অনুরোধের ভিত্তিতেই চালানো হবে। ট্রেনের খোঁজে ব্যক্তিগত ভাবে স্টেশনে জমায়েত করতে নিষেধ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকার যে সব ব্যক্তিদের নামের তালিকা পাঠাবে তাদেরই ট্রেনে তোলা হবে। এ ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। এ জন্য রেল কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যক্তি বা কোনও দলকে টিকিট দেবে না বলেও ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানো নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার সবুজ সঙ্কেত দেওয়ার পর টাস্ক ফোর্স তৈরি করে রাজ্য সরকার। পচনশীল পণ্য, অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা, বিধি নিষেধ সংক্রান্ত ব্যাখ্যা, পিপিই, মাস্ক ও স্যানিটাইজার সরবরাহ, পরিবহণ, বিদ্যুত্‍ ও পরিযায়ী শ্রমিকদের বিষয়গুলি খতিয়ে দেখার জন্য সাত সদস্যের একটি টাস্ক ফোর্স গঠন করে রাজ্য সরকার। প্রত্যেক জেলাশাসককে তাঁদের সঙ্গে দৈনিক যোগাযোগ রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close