fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

ভয়াবহ মন্দায় বিশ্বে জিডিপি কমবে ৫.২ শতাংশভারতের অর্থনীতি ৩.২ শতাংশ সংকুচিত হবে: বিশ্ব ব্যাঙ্ক

ওয়াশিংটন, (সংবাদ সংস্থা): দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর বিগত আট দশকে এই প্রথম বড়সড় অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়তে চলেছে বিশ্ব অর্থনীতি। চলতি আর্থিক বছরে দেখা দেবে ভয়াবহ মন্দা। বিশ্বজনীন জিডিপি কমবে ৫.২ শতাংশ।
মঙ্গলবার সেমি অ্যানুয়াল গ্লোবাল প্রসপেক্ট রিপোর্ট প্রকাশ করে এমনই দাবি করলো বিশ্ব ব্যাঙ্ক। চিন ছাড়া বিশ্বের সব দেশের  অর্থনীতি সংকুচিত হবে বলে দাবি করা হয়েছে ওই রিপোর্টে। সেই তালিকায় রয়েছে ভারতও। বিশ্ব ব্যাঙ্কের হিসাব অনুযায়ী চলতি অর্থবর্ষে ৩.২ শতাংশ সংকুচিত হতে পারে ভারতীয় অর্থনীতি। তবে পরের বছর অর্থাৎ ২০২১-২২ অর্থবর্ষে ভারতের অর্থনীতি ৩.১ শতাংশ হারে বাড়তে পারে।
করোনা অতিমহামারির দীর্ঘ প্রভাব যে বিশ্ব অর্থনীতিতে পড়বে, গত কয়েকমাস ধরেই তা বারবার সামনে আনার চেষ্টা করছিলেন অর্থনীতিবিদরা। সেই মতো প্রত্যেকটি দেশকে পরিকল্পনা গ্রহণের পরামর্শও দেন তাঁরা। এবার সেই আশঙ্কাতে শিলমোহর দিল বিশ্ব ব্যাঙ্কের রিপোর্টও।গত জানুয়ারিতে বিশ্ব ব্যাংক জানিয়েছিল, বিশ্বজনীন জিডিপি ২.৫ শতাংশ হারে বাড়তে পারে। কিন্তু কয়েক মাসের ব্যবধানে মহামারি সব হিসাব উলোটপালট করে দিয়েছে।
করোনা আর লকডাউনের জেরে কর্মসংস্থান হ্রাস, উৎপাদন বন্ধ, চাহিদা-যোগানের অসামঞ্জস্যতাকে তুলে ধরে এদিনের রিপোর্টে বিশ্ব ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণের জন্য বিশ্বজুড়ে যে মহামারি শুরু হয়েছে সেই মহামারীকে ঠেকাতে লকডাউন চালু হওয়ায় ব্যবসা বাণিজ্য কার্যত তলানিতে ঠেকেছে। বিশেষ করে অসংগঠিত ক্ষেত্র প্রবল ধাক্কা খেয়েছে। ফলে অনেকেই চাকরি খুইয়েছেন। বিপুল সংখ্যক মানুষের আয় কমে গিয়েছে। করোনার ধাক্কায় বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশগুলির বহু কোটি মানুষ ফের দারিদ্রসীমার নিচে চলে গিয়েছেন। তার ফলে চলতি আর্থিক বছরে বিশ্বজনীন জিডিপি তথা মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদন ৫.২ শতাংশ হারে সংকুচিত হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। শুধু তাই নয়,  যেসব রাষ্ট্রে স্বাস্থ্য পরিকাঠামো দুর্বল, যারা বিদেশি সাহায্যের উপর নির্ভরশীল, এবং বৈদেশিক বাণিজ্য, রফতানি ও পর্যটনের উপরে যেখানে অর্থনীতি দাঁড়িয়ে রয়েছে, সেই দেশগুলিতে মন্দার ধাক্কা সবথেকে বেশি হবে।
বিশ্ব ব্যাঙ্কের দাবি, গত ১৫০ বছরের ইতিহাসে চতুর্থবার মহামন্দা গ্রাস করতে চলেছে দুনিয়াকে। ১৯১৪, ১৯৩০-৩২, ১৯৪৫-৪৬ সালের পর চতুর্থবার বিশ্ব অর্থনীতি এত তীব্র সঙ্কটে পড়েছে। তবে এই সঙ্কটের মধ্যেও আশার কথা শুনিয়েছে বিশ্ব ব্যাঙ্ক। তাদের মতে, চলতি অর্থবছরের সংকট কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াতেও বেশি সময় নেবে না উন্নয়নশীল দেশগুলি। ২০২১ সালে ফের বৃদ্ধির পথে হাঁটার আশা রয়েছে বিশ্ব অর্থনীতির। তখন বৃদ্ধির হার হতে পারে ৪.২ শতাংশ।
এ প্রসঙ্গে বিশ্ব ব্যাঙ্কের ভাইস প্রেসিডেন্ট সিইলা বলেন, ‘মহামারীর কারণে ১৮৭০ সালের পর এই প্রথমবার  গভীর মন্দায় চলে গেল বিশ্ব অর্থনীতি। উন্নত দেশগুলির অর্থনীতি ৭ থেকে ৯.১ শতাংশ হারে সংকুচিত হতে পারে। বিশেষ করে ইউরো অঞ্চলে সেই আশঙ্কা প্রবল। উন্নয়নশীল অর্থনীতিগুলির সংকোচন হতে পারে ২.৫ শতাংশ হারে। সব মিলিয়ে যে পরিমাণ অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে তাতে পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। মাথা পিছু আয় কমে যাওয়ায় ৭ থেকে ১০ কোটি মানুষ অতিশয় দারিদ্রের মধ্যে পড়তে পারেন।’

Related Articles

Back to top button
Close