fbpx
হেডলাইন

আলিপুর-সহ রাজ্যের সব চিড়িয়াখানা খুলে গেল, পশু পাখির আচরণের উপর নজর

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: দীর্ঘ ৭ মাস পরে শুক্রবার থেকে খুলে গেল আলিপুরসহ রাজ্যের সব চিড়িয়াখানা। তবে করোনা পরিস্থিতিতে দর্শকদের জন্য জারি হয়েছে একাধিক বিধিনিষেধ। পাশাপাশি চিড়িয়াখানার আবাসিক পশু পাখিদের আচরণের উপর কড়া নজর থাকবে কর্তৃপক্ষের। আলিপুর চিড়িয়াখানায় অধিকর্তা আশিস সামন্ত বলেন, ‘ প্রথম দিনটা সব পশু পাখিকেই সিসিটিভির নজরদারিতে রাখা হবে। দর্শকদের যেমন বিধিনিষেধ রয়েছে তেমনই পশু পাখিরা নতুন পরিবেশে কে কেমন আচরণ করে তাহলে দেখে পর্যালোচনা করা হবে। ‘

ঘটনা হল গত ৭ মাসে প্রকৃতির মধ্যে নিজেদের খুশিমতো কাটিয়েছে চিড়িয়াখানার পশুরা। হৈ চৈ, চেঁচামেচি, কানে আসেনি। মানুষের ভিড় নজরে আসেনি। শুধু জু কিপাররা খাবার দাবার দিতে আসতেন। এতোদিন পরে মানুষ দেখে শিম্পাঞ্জি বাবু, রয়্যাল বেঙ্গল স্নেহাশিস, সিংহ – সিংহী বিশ্বাস, শ্রুতির কী প্রতিক্রিয়া হয় সেটাই দেখার। আশিসবাবুই জানালেন, অনেকদিন মানুষ না দেখার অভ্যাসে একদিন তাঁর উপরেই মেজাজ দেখিয়ে ফেলেছিল।

আরও পড়ুন: স্বয়ংসিদ্ধা নারী শক্তির বোধনে গর্বিত বাংলা

দর্শকদের জন্য ও বিধি নিষেধ রয়েছে। এনক্লোজারের সামনে গোল দাগ কেটে দেওয়া অংশের মধ্যেই দাঁড়াতে হবে। বড়ো এনক্লোজারের সামনে ১০ , ছোট এনক্লোজারের সামনে ৫ জনের বেশি দর্শককে দাঁড়াতে দেওয়া হবে না। চিড়িয়াখানায় ঢোকার মুখে শরীরের তাপমাত্রা মাপা হবে। মাস্ক অবশ্যই পরতে হবে। অনলাইনেই টিকিট কাটতে হবে। পানীয় জল সঙ্গে নিয়ে ঢুকতে হবে। তবে সঙ্গে খাবার আনা যাবে না। যে কোন রকম স্পর্শ থেকে দূরে থাকতে হবে। তিন ঘণ্টার বেশি চিড়িয়াখানায় থাকা যাবে না।

Related Articles

Back to top button
Close